corona virus btn
corona virus btn
Loading

#Exclusive: এভাবে পরীক্ষা করলে দ্রুত বেরোবে ফল কিন্তু কিট নেই, করোনা ভাইরাসের জন্য সেরোলজিক্যাল টেস্ট হচ্ছে না

#Exclusive: এভাবে পরীক্ষা করলে দ্রুত বেরোবে ফল কিন্তু কিট নেই, করোনা ভাইরাসের জন্য সেরোলজিক্যাল টেস্ট হচ্ছে না
Photo- Reuters

১০ তারিখ আসছে ৭ লক্ষ কিট

  • Share this:

#নয়াদিল্লি : করোনা ভাইরাস আক্রান্ত নির্ণয়ের জন্য একাধিক পদ্ধতি রয়েছে৷ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদিত প্রথম টেস্টের পদ্ধতি হল NAAT tests৷ এই পদ্ধতিতে উপরের শ্বাসযন্ত্র থেকে  nasopharyngeal swab সংগ্রহ করা হয়৷ নাকের পিছনের গলার ভিতর থেকে মিউকাস ও স্যালাইভা সংগ্রহ করা হয়৷

সেই স্যাম্পেল নিয়ে আসা হয় ল্যাবরেটরিতে সেখানেই SARS-CoV-2 রিয়েল টাইম রিভার্স ট্রান্সক্রিপশন পলিমার্স চেন রিঅ্যাকশন থেকে ফলাফল পাওয়া যায় ৷ এ

এই পরীক্ষা করতে তিন থেকে চার ঘণ্টা সময় লাগে , ফলে রিপোর্ট পেতে যে কোনও দেশেই কয়েকদিন সময় লেগে যায়৷

সেরোলজিক্যাল টেস্ট আরও একটা পদ্ধতি যার থেকেও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ হয়েছে কিনা জানা যায় ৷ এই পদ্ধতিতে রক্তের সেরামে অ্যান্টিবডি আছে কিনা তা দেখা যায় ৷ শ্বেত রক্তকণিকা যে প্রোটিন তৈরি করে সেটাই অ্যান্টিবডি ৷ আর এই অ্যান্টিবডিই বাইরের অ্যান্টিজেনের সঙ্গে লড়াই করে ৷

 

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের মতে , ‘সেরাম থাকে অ্যান্টিজেনের সঙ্গে লড়াই করার জন্য আলাদা আলাদা অ্যান্টিবডি থাকে ৷ আর নিজের সংক্রমণ রোধী ক্ষমতাকে ব্যবহার করে সে অ্যান্টিজেনদের চিহ্নিত করে ৷ ’

সেরোলজিস্ট টেস্ট দিয়ে সংক্রমণের পরিমাণ কতটা সেটা জানতে পারা যায় ৷ এই রোগের বিরুদ্ধে মৃত্যুর হার কতটা সেটাও বোঝা যায় এই টেস্টে ৷

এই পদ্ধতিতে টেস্ট হলে ১৫ মিনিটের মধ্য সংক্রমণ সম্পর্কে তথ্য জানা যায় ৷ এদিকে এপ্রিল মাসে আমেরিকায় এই পদ্ধতিতে পরীক্ষা স্বীকৃতি পেয়েছে ৷ এদিকে যেহেতু এই পদ্ধতিতে অনেক তাড়াতাড়ি ফলাফল পাওয়া যায় তাই ভারতে এটা ব্যবহারের স্বীকৃতি থাকলেও এটা করা যাচ্ছে না ৷ কারণ এখনও কিটই নেই ভারতে ৷ সূত্রের খবর ১০ তারিখ ভারতে ৭ লক্ষ কিট আসবে তখন আরও অনেক বেশি করে করোনা ভাইরাসের টেস্ট করা যাবে ৷

 
Published by: Debalina Datta
First published: April 8, 2020, 5:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर