#Coronavirus৷ মুর্শিদাবাদে মৃত যুবক কি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন, কী বলছে রিপোর্ট

#Coronavirus৷ মুর্শিদাবাদে মৃত যুবক কি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন, কী বলছে রিপোর্ট

গত রবিবার মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি ৩৩ বছর বয়সি যুবকের মৃত্যু হয়৷ কিছুদিন আগেই তিনি সৌদি আরব থেকে ফিরেছিলেন৷

  • Share this:

#মুর্শিদাবাদ: মুর্শিদাবাদে মৃত যুবকের শরীরে করোনা জীবাণু ছিল না৷ মৃতের রক্ত এবং থুতু পরীক্ষার রিপোর্ট আসার পরই এ বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর৷

গত রবিবার মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি ৩৩ বছর বয়সি যুবকের মৃত্যু হয়৷ কিছুদিন আগেই তিনি সৌদি আরব থেকে ফিরেছিলেন৷ দীর্ঘ দিন ধরেই তিনি ব্লাড সুগারের সমস্যায় ভুগছিলেন৷ কিন্তু সম্প্রতি দেশে ফেরার পর তাঁর শরীরে করোনা ভাইরাসের তিনটি উপসর্গ দেখা যায়৷ ফলে শনিবার তাঁকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়৷ সেখানেই রবিবার মৃত্যু হয় তাঁর৷

হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরেই ওই যুবকের রক্ত এবং থুতুর নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়৷ কিন্তু রিপোর্ট আসার আগেই ওই যুবকের মৃত্যু হওয়ায় তাঁর মৃত্যুর কারণ করোনা ভাইরাস কি না, তা নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছিল৷

যদিও সংবাদসংস্থার খবর অনুযায়ী, ওই যুবকের মৃত্যুর কারণ করোনা ভাইরাস নয় বলেই জানিয়েছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর৷ সোমবারই তাঁর রক্ত এবং থুতু পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে এসেছে৷ ডিরেক্টর অফ হেলথ সার্ভিসেস অজয় চক্রবর্তী জানিয়েছেন, সম্ভবত ডায়াবেটিসের কারণেই মৃত্যু হয়েছে ওই ব্যক্তির৷ তিনি জানিয়েছেন, 'ওই ব্যক্তির শরীরে ডায়াবেটিসের মাত্রা বেশি থাকায় তাঁকে নিয়মিত ইনসুলিন নিতে হতো৷ কিন্তু সৌদি আরব থেকে ফেরার পর থেকে তাঁর কাছে ইনসুলিন কেনার টাকা ছিল না৷ ইনসুলিন না নেওয়ায় ডায়াবেটিসের মাত্রা বেড়ে গিয়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন৷'

ওই ব্যক্তি যেহেতু জ্বর, সর্দি এবং কাশিতে ভুগছিলেন তাই তাঁকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছিল৷ তাঁর পরিবারকেও আলাদা করে রাখা হয়৷ সেই কারণেই কোনও ঝুঁকি নিতে চায়নি স্বাস্থ্য দফতর৷ কিন্তু যেহেতু মৃতের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের প্রমাণ মেলেনি, তাই তাঁর পরিবারকেও ছেড়ে দেওয়া হবে৷

First published: March 10, 2020, 8:34 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर