corona virus btn
corona virus btn
Loading

অটোতে করে শ্মশানে পৌঁছল করোনা রোগীর দেহ! তেলেঙ্গনায় চরম গাফিলতি

অটোতে করে শ্মশানে পৌঁছল করোনা রোগীর দেহ! তেলেঙ্গনায় চরম গাফিলতি
এভাবেই অটোতে করে নিয়ে যাওয়া হয় করোনা রোগীর দেহ৷

অ্যাম্বুল্যান্সের ব্যবস্থা না করেই তেলেঙ্গানার ওই সরকারি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রোগীর দেহ পরিজনদের হাতে দিয়ে দেয়৷

  • Share this:

#নিজামাবাদ: দেশে হু হু করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ৷ সেলিব্রিটি থেকে সাধারণ মানুষ, করোনার গ্রাস থেকে যেন বাঁচতে পারছেন না কেউই৷ তবু এক শ্রেণির মানুষ তো বটেই, যাঁরা করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সরাসরি যুক্ত, তাঁদের মধ্যেও যেন সচেতনতার অভাব থেকেই যাচ্ছে৷ সেরকমই একটি চরম গাফিলতির ছবি এবার সামনে এল তেলেঙ্গনা থেকে৷

অভিযোগ, তেলেঙ্গানার নিজামাবাদে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত এক রোগীর দেহ অটোতে করে শ্মশানে নিয়ে যাওয়া হয়৷ এ ক্ষেত্রে নিজামাবাদের একটি সরকারি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধেই গাফিলতির অভিযোগ উঠেছে৷ কারণ মৃতদেহ নিয়ে যাওয়ার সময় অটোতে হাসপাতালের কোনও কর্মী ছিলেন না৷ হাসপাতালের নিযুক্ত বা সরকারি কর্মীদের নজরদারিতে যেখানে করোনা আক্রান্তের মৃতদের দেহ শ্মশানে পৌঁছনো এবং শেষকৃত্য হওয়ার কথা৷ এ ক্ষেত্রে গোটা বিষয়টাই রোগীর পরিজনরাই সামলান বলে অভিযোগ৷

সংবাদসংস্থা এএনআই-এর খবর অনুযায়ী, অ্যাম্বুল্যান্সের ব্যবস্থা না করেই তেলেঙ্গনার ওই সরকারি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রোগীর দেহ পরিজনদের হাতে দিয়ে দেয়৷ ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর হাসপাতালের সুপার নাগেশ্বর রাও দাবি করেন, মৃতের এক আত্মীয় হাসপাতালের কর্মী৷ তাঁর কথাতেই মৃতদেহ পরিবারের হাতে দেওয়া হয়৷ সুপারের দাবি, হাসপাতালের মর্গের এক কর্মীর সাহায্যেই ওই দেহ বের করে নিয়ে অটোতে করে চলে যান মৃতের পরিজনরা৷

হাসপাতালের সুপার জানিয়েছেন, ২৭ জুন ৫০ বছর বয়সি একজন রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়৷ চিকিৎসা চলাকালীন তাঁর করোনা ধরা পড়ে৷ শনিবার ওই রোগীর মৃত্যু হয়৷ সুপারের আরও দাবি, রোগীর পরিবারকে অ্যাম্বুল্যান্স আসার জন্য অপেক্ষা করতে বলা হয়েছিল৷ কিন্তু তাঁরা অটো ডেকে এনে মৃতদেহ নিয়ে চলে যান৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: July 12, 2020, 12:57 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर