Coronavirus আতঙ্কে ইয়াকোহামায় আটকে ডায়মন্ড প্রিন্সেস, আটকে অগুণতি ভারতীয় পর্যটকও

ডায়মন্ড প্রিন্সেসের অনেক যাত্রীই এই বন্দিদশা থেকে মুক্তি চান।

ডায়মন্ড প্রিন্সেসের অনেক যাত্রীই এই বন্দিদশা থেকে মুক্তি চান।

  • Share this:

    #ইয়াকোহামা: কাছে এসেও পাড়ে নামার সুযোগ মেলেনি। করোনা আতঙ্কে জাপানের ইয়োকোহামা বন্দরের কাছে আটকে ক্রুজ শিপ ডায়মন্ড প্রিন্সেস। বিলাসবহুল এই জাহাজে আটকে অগুণতি ভারতীয় পর্যটক ও জাহাজকর্মী। করোনা-আতঙ্কে ১৯ ফেব্রুয়ারির আগে জাহাজটিকে বন্দরে ঢুকতে দেবে না জাপান প্রশাসন।

    সাত সকালেই টেক অফ। চপার থেকে ডায়মন্ড প্রিন্সেসকে দেখার চেষ্টা। নোভাল করোনাভাইরাসের শিকার বিশাল এই প্রমোদতরীও। জাহাজের শতাধিক যাত্রী ও কর্মীর শরীরে থাবা বসিয়েছে এই মারণ ভাইরাস। তাই ইয়োকোহামা বন্দরে নোঙর ফেলতে দেয়নি জাপান প্রশাসন। আপাতত উনিশে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মাঝসমুদ্রে অপেক্ষা।

    প্রতিদিন সকালে কেবিনের দরজার সামনে ব্রেকফাস্ট রেখে যাচ্ছেন জাহাজকর্মীরা। রবিবার জাহাজের ডেকে যাওয়ারও অনুমতি দেওয়া হয় যাত্রীদের। তবে মাত্র এক ঘণ্টার জন্য। মুখে মাস্ক পড়ে। অন্য যাত্রীদের থেকে কয়েক হাত দূরে থাকারও পরামর্শ দেওয়া হয়। ভাইরাস রুখতে এছাড়া আর বিকল্পও নেই জাহাজ কর্তৃপক্ষের কাছে। অনেক যাত্রীর কাছেই অবশ্য এটা খাঁচাবন্দি পরিস্থিতির সমান। তবে এছাড়া যে করোনা রোখার উপায় নেই তাও বুঝতে পারছেন যাত্রীরা।

    ডায়মন্ড প্রিন্সেসের অনেক যাত্রীই এই বন্দিদশা থেকে মুক্তি চান। জাহাজের একচিলতে ঘর থেকে বেরিয়ে পা রাখতে চান বন্দরে। তবে ১৯ ফেব্রুয়ারির আগে সেই সম্ভবনা নেই। ততদিন বন্দরের কাছে থেকেও দূরেই থাকতে হবে ডায়মন্ড প্রিন্সেসকে।প্রতিমুহূর্তে লড়তে হবে করোনাভাইরাসের আতঙ্কের সঙ্গে।

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: