করোনা টিকা নিলে মদ্যপান নিষেধ? রইল সব প্রশ্নের উত্তর

করোনা টিকা নেওয়া হলেই কি মদ্যপান বন্ধ প্রতীকী চিত্র

এখানে এই প্রসঙ্গে ওঠা যাবতীয় প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হল।

  • Share this:

    ১৮-৪৫ বছর বয়সিদের টিকাকরণের আওতায় এনেছে কেন্দ্র। তারপর থেকেই মুখে মুখে ঘুরছে প্রশ্নটা, করোনা টিকা নিলে কি মদ্যপান করা বারণ? বারণ হলে সেই নিষেধাজ্ঞা কত দিনের। যতই সময় যাচ্ছে, বাড়ছে গুজব, অপতথ্য ছড়িয়ে দেওয়ার প্রবণতা। তাই এখানে এই প্রসঙ্গে ওঠা যাবতীয় প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হল।

    দেশের  স্বাস্থ্যমন্ত্রক টিকা ও মদ্যপান নিয়ে কী বলছে ?

    স্বাস্থ্যমন্ত্রকের জারি করা নির্দেশিকতায় স্পষ্ট করে বলা আছে, মদ খেলে টিকার কার্যকারিতা নষ্ট হতে পারে এমন কোনও প্রমাণ্য নথি নেই।

    অন্যান্য আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য-সংস্থাগুলি কী বলছে ?

    মার্কিন স্বাস্থ্য সংস্থা দ্য সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশান এবং ব্রিটেনের জনস্বাস্থ্য সংস্থা এই নিয়ে কোনও মন্তব্য ব্যক্ত করেনি। যদিও ব্রিটেনে কয়েকজন বিশেষজ্ঞ টিকা নিয়ে মদ্যপান বন্ধ রাখার পরামর্শ দিয়েছেন। এধিকে ব্রিটিশ ওষুধ ও স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক এজেন্সি বলেছে, এমন কোনও প্রত্যক্ষ উদাহরণ নেই যাতে সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে ভ্যাকসিন নিয়ে মদ্যপান করা যায় না। তাদের পরামর্শ, এক্ষেত্রে ভ্যাকসিন গ্রহীতার উচিত তাঁর চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া।

    টিকার দুটি ডোজের মাঝখানে কি মদ্যপান করা যায়?

    Forbes ম্যাগাজিনে প্রকাশিত একটি রিপোর্টে প্রকাশ এক রাশিয়ান বৈজ্ঞানিক ভ্যাকসিনের দুই ডোজের মাঝে অন্তত তিন সপ্তাহ মদ্যপান করতে না করেছেন। আরও একজন বিশেষজ্ঞর মত, মদ্যপান করা যাবে না টিকার প্রতিটি ডোজ নেওয়ার পরের তিন দিন। বিজ্ঞানীদের যুক্তি, এই সময়ে মদ্যপান করলে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যেতে পারে। নিউ সায়েন্টিস্ট ম্যাগাজিনের একটি প্রবন্ধয় দেখানো হয়েছে, অ্যাস্ট্রোজেনেকা ভ্যাকসিনের ট্রায়ালের সময়ে ভলেন্টিয়ারদের মদ্যপান করতে নিষেধ করা হয়েছিল। ফাইজার অবশ্য পরিষ্কার জানিয়েছে, মদ্যপান করা না করার সঙ্গে তাদের টিকা নেওয়ার কোনও সম্পর্রকই নেই।

    দুটি ডোজের ভ্যাকসিন নেওয়া হয়ে গেলে মদ্যপান করা যায়?

    ম্যাঞ্চেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন রোগ প্রতিরোধ বিশেষজ্ঞর মতে, যে মানুষের রোগপ্রতিরোধক ক্ষমতা যত ভালো তার শরীরে টিকা তত বেশি মাত্রায় কার্যকরী হবে।

    ফলে সবটা বিবেচনা করে আমরা বলতে পারি, কোনও সংস্থাই কোনও বিধিনিষেধ চাপিয়ে দেয়নি। তবে প্রত্য়েকেরই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত এ ব্যাপারে। পাশাপাশি কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হচ্ছে কিনা ভ্যাকসিনে সেই বিষয়টাও মাথায় রেখে, পরিমিত,নিয়ন্ত্রিত মদ্যপান করাই যেতে পারে। সংযমের শর্তটা অবশ্য সবসময়েই প্রযোজ্য।

    Published by:Arka Deb
    First published: