করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ফ্লুয়ের থেকে কম প্রাণঘাতী করোনা! ট্রাম্পের দাবি ভুল বলে সরিয়ে দিল ফেসবুক, ট্যুইটার

ফ্লুয়ের থেকে কম প্রাণঘাতী করোনা! ট্রাম্পের দাবি ভুল বলে সরিয়ে দিল ফেসবুক, ট্যুইটার

করোনা নিয়ে যে সব তথ্য বিভ্রান্তিকর বা ভুল, সেগুলি ফেসবুক থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়৷ কারণ এতে মানুষের কাছে ভুল বার্তা যায়, যা ফেসবুক চায় না৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: অন্য ফ্লুয়ের থেকে করোনা ভাইরাস অনেকটা কম প্রাণঘাতী! দাবি করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের৷ করোনা সংক্রমিত হয়ে ৩ দিন হাসপাতালে থাকার পর তিনি আপাতত হোয়াইট হাউজে ফিরেছেন৷ এরপরই নিজের সোশ্যাল অ্যাকাউন্ট, ফেসবুক এবং ট্যুইটারে করোনা নিয়ে এমন দাবি করেন ট্রাম্প৷ তিনি লেখেন যে, মার্কিনিরা ফ্লুয়ের (flu) সঙ্গে অভ্যস্ত৷ এখন তাঁরা করোনার সঙ্গেও ঘর করতে শিখে গিয়েছে এবং বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই এই রোগ তেমন মারণ নয়৷ এতেই তৈরি হয়েছে বিতর্ক৷ তড়িঘড়ি মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই দাবি ট্যুইটার এবং ফেসবুক থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়৷ কারণ কোনও বিভ্রান্তিকর মন্তব্য বা এমন মন্তব্য যাতে ভুল বার্তা যায়, তা এই সোশ্যাল মিডিয়াগুলি রাখে না এবং কোনও ভাবে সমর্থন করে না৷ ট্রাম্পের মন্তব্য সরিয়ে দিয়ে আরও একবার নিজেদের দায়িত্ব পালন করল ফেসবুক, ট্যুইটার৷

করোনা নিয়ে খুবই সচেতন ফেসবুক, ট্যুইটার৷ কোনও ভুল খবর তাদের মাধ্যমে সকলের কাছে পৌঁছে যাক সেটা একেবারেই চায় না কর্তৃপক্ষ৷ যার জেরে এই পদক্ষেপ৷ করোনার মৃত্যুর হার সঠিকভাবে জানা যায়নি৷ তবে সাধারণ ফ্লু বা জ্বরের থেকে তা ১০ গুণ বেশি বলেই মনে করছেন গবেষকরা৷ এমনই তথ্য জানিয়েছে জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়৷

এরই পরিপেক্ষিতে ট্রাম্প লেখেন রিপেল সেকশন ২৩০, অর্থাৎ ধারা ২৩০ মুছে দেওয়া হোক৷ সোশ্যাল নেটওয়ার্কগুলি তাদের ব্যবহারকারীরা কী পোস্ট করলেন তার জন্য দায়ী থাকবে না৷ এমনই এই আইন৷ এই বিষয়টি উল্লেখ করেই ট্রাম্পের এই পোস্ট৷ তবে এক্ষেত্রে কোনও বিতর্কিত মন্তব্য ভালর জন্য মুছে ফেলার ক্ষমতা থাকবে সোশ্যাল মিডিয়াগুলির হাতে৷ তবে এই ধারা উঠে গেলে কোনও উইজারের পোস্ট তাঁর অনুমতি ছাড়া মুছে দিলে সোশ্যাল মিডিয়াগুলির বিরুদ্ধে মামলা করা যাবে৷ করোনা নিয়ে তাঁর লেখা মুছে দেওয়ার ফলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট যে খুব বিরক্ত হয়েছেন, এই পোস্ট থেকে সেটা স্পষ্ট৷

তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও একবার ফেসবুক থেকে মুছে দেওয়া হয়েছিল ট্রাম্পের পোস্ট৷

Published by: Pooja Basu
First published: October 7, 2020, 10:51 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर