COVID19: সংক্রামণ বাড়ছে, দ্বিধা কাটিয়ে টিকা নেওয়ার ভিড়ও বাড়ছে বীরভূমে

COVID19: সংক্রামণ বাড়ছে, দ্বিধা কাটিয়ে টিকা নেওয়ার ভিড়ও বাড়ছে বীরভূমে

করোনার টিকাকরণ

২০২১ সালের প্রথম দিকে কোরোনা সংক্রমণ অনেকটাই কম থাকায় মানুষের মনে করোনার টিকা গ্রহণ নিয়ে কিছুটা দ্বিধা ছিল।

  • Share this:

#বীরভূম: বীরভূম (Birbhum)জেলায় বেড়েই চলেছে করোনা (corona) সংক্রামণের হার। ২০২০ সালে যে কোরোনা (Coronavirus)গোটা বিশ্বকে গ্রাস করেছিল,  ২০২১এ সেই কোরোনা মুক্ত হবে গোটা পৃথিবী, এমনটাই আশা ছিল মানুষের। কিন্তু ২০২০পেরিয়ে ২০২১-এও বাড়ছে করোনার প্রকোপ৷ একদিকে যেমন কোরোনার টিকা আবিষ্কার হয়েছে, অন্যদিকে  তেমনি গোটা বিশ্বের দুয়ারে এসে হাজির হয়েছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ।  ২০২১এর শুরু থেকেই করোনার টিকাকরণ শুরু হয়ে গিয়েছে৷ টিকাকরণ (corona vaccine) চলছে বীরভূমেও। প্রথম প্রথম অনেকেই এই টিকা নিতে দ্বিধাবোধ করলেও করোনা সংক্রামণ বেড়ে চলার খবরে ধীরে ধীরে সবাই এগিয়ে আসছে এই টিকা গ্রহণের (vaccination drive) জন্য। মানুষের মন থেকে এই দ্বিধা কাটাতে করোনার টিকা নিতে উপস্থিত হয়েছেন বীরভূম জেলার প্রশাসনিক আধিকারিকরাও।

২০২১ সালের প্রথম দিকে কোরোনা সংক্রমণ অনেকটাই কম থাকায় মানুষের মনে করোনার টিকা গ্রহণ নিয়ে কিছুটা দ্বিধা ছিল। কিন্তু বর্তমানে করোনার সংক্রমণ বাড়তে থাকায় তারা সকলে করোনার টিকা প্রদানের স্থানে যাচ্ছেন ও নিজের পরিচয় পত্র দেখিয়ে টিকা গ্রহণ করছেন। এই কোরোনার টিকা আগে স্বাস্থ্য কর্মী, পুলিশ কর্মী অর্থাৎ বিভিন্ন জরুরি বিভাগের কর্মীদের দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও বিধানসভা ভোটের কথা মাথায় রেখে ভোটকর্মীদেরও দেওয়া হচ্ছে৷ এরই পাশাপাশি পৌরসভার বিভিন্ন কর্মীও পাচ্ছেন টিকা৷ সাধারণ ভাবে প্রথমে ৬০ বছরের উপরে এবং সম্প্রতি ৪৫ বছরের উপরে হলেই করোনা টিকা নিতে পারছেন দেশবাসী৷

আরও পড়ুন আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে ৪৫ বছরের উর্ধ্বে টিকাকরণ প্রক্রিয়া, কী ভাবে নিজের নাম নথিভুক্ত করবেন জেনে নিন!

বীরভূমের সদর শহর সিউড়ির সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল ও পৌরসভায় দুটি ধাপে টিকাকরণের প্রক্রিয়া চলছে। পৌরসভায় বয়স্কদের অর্থাৎ ৬০বা এর উর্ধ্বে ব্যক্তিদের টিকাকরণের প্রক্রিয়া চলছে।  অন্যদিকে সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হসপিটালে পৌরসভার নথি ভুক্ত করা নাম ও পুলিশ কর্মীদের কোভ্যাক্সিনের প্রথম ডোজ ও দ্বিতীয় ডোজ দেবার কর্মসূচী চলছে। আগের তুলনায় এখন এই টিকা নিতে প্রচুর মানুষের উপস্থিতি হচ্ছেন, জানিয়েছেন টিকা করণের সঙ্গে যুক্ত কর্মীরা। একদিনে প্রায় ১৫৯ থেকে ২০০ জনের উপস্থিতিও লক্ষ্য করা যাচ্ছে। আগের থেকে এখন মানুষ অনেক সচেতনতা অবলম্বন করছেন এবং প্রচুর মানুষ  করোনার টিকাকরণে সামিল হচ্ছেন বলে জানা গিয়েছে। এর পরও মাস্ক মুখে থাকছে না, এমন ছবি বারবার উঠে আসছে বীরভূম জেলার বিভিন্ন প্রান্তে ।

Published by:Pooja Basu
First published:

লেটেস্ট খবর