করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

মহামারী রুখতে কোভিড টিকা কোভিশিল্ড আসছে জানুয়ারিতে

মহামারী রুখতে কোভিড টিকা কোভিশিল্ড আসছে জানুয়ারিতে

আগামী বছর জানুয়ারিতে এবং ৪০-৫০ মিলিয়ন ডোজ ইতিমধ্যেই তৈরি রয়েছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিন আসতে চলেছে আগামী বছর জানুয়ারিতে এবং ৪০-৫০ মিলিয়ন ডোজ ইতিমধ্যেই তৈরি রয়েছে। সোমবার এই কথা জানালেন সেরাম ইনিস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ার চিফ এগ্জিকিউটিভ আদার পুনাওয়ালা৷

পুনাওয়ালা বলেন, শীঘ্রই ব্রিটেন থেকে সুখবর পাওয়া যাবে, জানুয়ারিতে তাঁরা অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকার লাইসেন্স পেয়ে যাবেন। কিছুদিনের মধ্যে নিয়ন্ত্রকের অনুমোদন পেয়ে গেলে, সরকার ঠিক করবে তাঁরা কতটা নেবে ও কত দ্রুত নেবে৷

পুনে-ভিত্তিক এসআইআই ভারতে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিন তৈরি করছে৷  ইতিমধ্যেই ভ্যাকসিনের ৪০ থেকে ৫০ মিলিয়ন ডোজ তৈরি করে ফেলেছেল তাঁরা। পুনাওয়ালা বলেন, তাঁরা কোভিশিন্ডের ৪০-৫০ মিলিয়ন ডোজ মজুত রেখেছেন। জুলাই ২০২১এর মধ্যে তাঁরা ৩০০ মিলিয়ন ডোজ তৈরি করার আশা রাখেন৷

এসআইআই এর প্রধান সাংবাদিক সম্মেলনে আরও বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ে এক বা দুমাসে গতি কিছুটা্ ধীর থাকবে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী জানুয়ারিতে কোভিশিল্ড বেরিয়ে যাবে বলে তিনি মনে করেন।

পুনাওয়ালা কোভিড-১৯ টিকার কার্যকারিতা নিয়ে সংশয় প্রসঙ্গে বলেন, সংশয়ের কোনও কারণ নেই। এই ভ্যাকসিনের ৯২ থেকে ৯৫ শতাংশ কার্যকারিতা রয়েছে৷

বর্তমানে ভারতে কোভিড-১৯ সংক্রমণের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১,০২,০৭,৮৭১। গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণ হয়েছে ২০,০২১টি।

প্রসঙ্গত, করোনার নতুন স্ট্রেন নিয়ে আতঙ্ক এখন গোটা বিশ্বে। কিন্তু তার মধ্যেই এ দেশে আজ থেকে শুরু হয়েছে করোনা প্রতিষেধকের পরীক্ষামূলক টিকাকরণ। সোমবার এবং মঙ্গলবার এই পরীক্ষা চালানো হবে। এর মাধ্যমে দেখা হবে টিকা কতদূর সংরক্ষণ করা যাচ্ছে। এ ছাড়াও টিকা দেওয়ার পরে মানুষের মধ্যে কোনও বিরূপ প্রতিক্রিয়া হচ্ছে কি না তা লক্ষ্য করা হবে। এই সব কিছু বিচার বিবেচনা করার জন্য করোনার ড্রাই রান করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। সূত্র অনুযায়ী জানা গিয়েছে, অন্ধ্রপ্রদেশ, পঞ্জাব, গুজরাত এবং আসাম এই চারটি রাজ্যের করোনার টিকা পরীক্ষা করা হবে।

Published by: Simli Dasgupta
First published: December 28, 2020, 10:43 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर