রবিবারও খোলা থাকছে করোনা স্ক্রিনিং সেন্টার, বাড়ছে ভিড়

রবিবারও খোলা থাকছে করোনা স্ক্রিনিং সেন্টার, বাড়ছে ভিড়

এদিকে নতুন করে আজ এক জনকে করোনা সন্দেহে মেডিকেলের আইশোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। ওই রোগী একটি বেসরকারী বিমান সংস্থার কর্মী।

  • Share this:

করোনার দাপট। ভিড় উপচে পড়ছে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের Covid 19 স্ক্রিণিং সেন্টারে। গতকাল থেকেই জ্বর, সর্দি, কাশি আক্রান্ত রোগীদের জন্য এই বিশেষ সেন্টার খোলা হয়েছে। দু'জন চিকিৎসক রয়েছেন। আজ সকাল থেকেই ভিড়ে ঠাসা ছিল সেন্টার। স্পেন, আমেরিকা, ফ্রান্স সহ একাধীক বিদেশ ফেরত বাসিন্দারা করোনা আতঙ্ক কাটাতে আসছেন এই সেন্টারে।

২৪ ঘন্টাই খোলা থাকবে এই সেন্টার। দুটো বেডও রাখা হয়েছে। বিভিন্ন বয়সীদের ভিড়। আর এই ভিড় সামলাতে সোমবার থেকে আরো দু'জন অতিরিক্ত চিকিৎসক দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মেডিকেলের সুপার কৌশিক সমাজদার। তিনি জানান, যারা বিদেশ থেকে এসছেন তাদের প্রত্যেককেই গৃহ পর্যবেক্ষনে থাকবার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে নিয়মিত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে বলা হয়েছে। কাল রবিবার ছুটির দিনেও Covid 19 সেন্টার খোলা থাকবে।

এদিকে নতুন করে আজ এক জনকে করোনা সন্দেহে মেডিকেলের আইশোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। ওই রোগী একটি বেসরকারী বিমান সংস্থার কর্মী। তার সোয়াব পরীক্ষার নমুনা আজ নাইসেডে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার রিপোর্ট আসবে। সুপার জানান, এখোনো উদ্বেগ কাটেনি। অন্যদিকে করোনা পরীক্ষার ল্যাবের কিট পুনে থেকে এলে ল্যাবরেটরি চালু করা হবে। বাকি পরিকাঠামো তৈরী। এদিকে পানিট্যাঙ্কি সীমান্ত দিয়ে ১৭২ জন নেপালের নাগরিককে নেপালে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। ইন্দো-নেপাল সীমান্তে হেলথ স্ক্রিণিংয়ে অতিরিক্ত তাপমাত্রা থাকায় নেপালে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আজ সীমান্ত পরিদর্শনে যান রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব। তিনি জানান, পরিকাঠামো ঠিকই আছে। স্বাস্থ্য কর্মী এবং এস এস বি জওয়ানেরা কাজ করে চলেছে। প্রত্যেককেই হ্যাণ্ড গ্লাভস এবং মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। করোনা সতর্কতা হিসেবে সবরকম ব্যবস্থাই নেওয়া হয়েছে। সীমান্তে হেলথ স্ক্রিণিং করেই দু'দেশের নাগরিকদের পারাপার করতে দেওয়া হচ্ছে। সন্দেহ হলেই আইশোলেশন ওয়ার্ড তৈরী, সেখানে ভর্তি করা হবে।

PARTHA PRATIM SARKAR

First published: March 22, 2020, 12:36 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर