করোনা ভাইরাস

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা সংক্রমণ তীব্র হবে নভেম্বরের মাঝামাঝি, তখন পাওয়া মুশকিল হবে বেড, ভেন্টিলেটর

করোনা সংক্রমণ তীব্র হবে নভেম্বরের মাঝামাঝি, তখন পাওয়া মুশকিল হবে বেড, ভেন্টিলেটর
File Image

তাঁদের গবেষণায় দেখা গিয়েছে, করোনা পিক টাইম ৩৪ থেকে ৭৬ দিন পিছিয়ে গিয়েছে

  • Share this:

#‌নয়াদিল্লি:‌ ভারতে করোনা সংক্রমণের সর্বোচ্চ সময় পিছিয়ে গিয়েছে বেশ কয়েক সপ্তাহ। লকডাউনের কারণে সংক্রমণের পরিমাণ কমেছে, তাই ‘‌পিক টাইম’‌ বা সর্বোচ্চ সংক্রমণের সময় পিছিয়েছে। আর সেই সর্বোচ্চ সংক্রমণ দেখা দিতে পারে নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে। আর তখনই হাসপাতালে বেড বা ভেন্টিলেটরের তীব্র অভাব দেখা দিতে পারে, মনে করছে ICMR এর Operations Research Group।

তাঁদের গবেষণায় দেখা গিয়েছে, করোনা পিক টাইম ৩৪ থেকে ৭৬ দিন পিছিয়ে গিয়েছে। লকডাউনের ফলে সংক্রমণের পরিমাণ কমেছে ৬৯ থেকে ৯৭ শতাংশ। সেই সময়ে স্বাস্থ্য পরিকাঠামো তৈরি করে নিতে পেরেছে প্রশাসন। কিন্তু এই আয়োজনে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত যথেষ্ট চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব। তারপর থেকে আইসোলেশন বেডের সমস্যা দেখা দিতে পারে ৫.‌৪ মাসের জন্য, আইসিইউ বেডের সমস্যা দেখা দিতে পারে ৪.৬ মাসের জন্য, আর ভেন্টিলেটরের সমস্যা দেখা দিতে পারে ৩.‌৯ মাসের জন্য।

তবে, লকডাউন না হলে এই সংকটের পরিমাণ আরও ৮৩ শতাংশ বেশি হত বলেও মনে করছেন গবেষকরা। তাঁরা বলছেন, লকডাউন না থাকলে পিক টাইমে সংক্রমণের পরিমাণ বাড়তে পারত আরও ৭০ শতাংশ। মনে করা হচ্ছে, করোনা মোকাবিলার পরিকাঠামোর উন্নতিতে নিয়মিত রিভিউ মিটিং ও নীতি পরিবর্তনের প্রয়োজন আছে। স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর জন্যও জিডিপির ৬.‌২ শতাংশ খরচ করাও প্রয়োজন বলে মনে করছেন তাঁরা।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: June 14, 2020, 11:31 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर