corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউন কাটিয়ে খুলছে আকাশ, সব সময় পরতে হবে মাস্ক, বিমানে শৌচাগার কম ব্যবহারের পরামর্শ

লকডাউন কাটিয়ে খুলছে আকাশ, সব সময় পরতে হবে মাস্ক, বিমানে শৌচাগার কম ব্যবহারের পরামর্শ
Representational Image

নিয়মের গেরোয় বিমানবন্দর এমনকী, বিমান যাত্রাটাও একেবারে অন্যরকম লাগতে পারে। সেটা পছন্দ হোক বা না হোক, ডিজিসিএ-র নির্দেশিকা মেনেই বিমানে যাতায়াত করতে হবে।

  • Share this:

#কলকাতা: লকডাউন কাটিয়ে খুলছে আকাশ। সোমবার থেকে দেশের মধ্যে উড়ান চলাচল শুরু হচ্ছে। বিমানবন্দরে ঢোকা থেকে গন্তব্যে পৌঁছনো পর্যন্ত - মানতে হবে একাধিক নিয়মবিধি। কী কী নিয়ম মানা মাস্ট? গাইডলাইন দিয়ে জানাল কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক।

কোভিড 19 আতঙ্ক কাটিয়ে আকাশ খুলছে। কলকাতায় না হলেও দেশের অন্যান্য অনেক শহরে সোমবার থেকে অন্তর্দেশীয় উড়ান চলাচল শুরু। তবে নিয়মের গেরোয় বিমানবন্দর এমনকী, বিমান যাত্রাটাও একেবারে অন্যরকম লাগতে পারে। সেটা পছন্দ হোক বা না হোক, ডিজিসিএ-র নির্দেশিকা মেনেই বিমানে যাতায়াত করতে হবে। কী কী নিয়ম মানতে হবে যাত্রীদের? এনিয়ে তিন ধাপে নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে।

সবার আগে ৪টি শর্ত মাথায় রাখতে হবে

১. বিমানে উঠতে হলে, সবসময় মাস্ক পরতে হবে ২. আরোগ্য অ্যাপ চালু রাখতে হবে ৩. কোভিড-19 উপসর্গ থাকলে চলবে না ৪. কন্টেইনমেন্ট জোনের বাসিন্দা না হওয়া 

এয়ারপোর্টে ঢুকে গেটে প্রথমবার পরীক্ষা হবে। আরোগ্য অ্যাপের স্টেটাস দেখা হবে ৷ সুস্থতার অঙ্গীকারপত্র দিতে হবে যাত্রীদের ৷ তারপর কোনওদিকে না তাকিয়ে বোর্ডিং কাউন্টারে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য যাবেন যাত্রী ৷ পাস নেওয়ার আগে শারীরিক পরীক্ষা হবে ৷ ছাড়পত্র মিললে চেক ইন এরিয়া থেকে বোডিং পাস নেবেন ৷ ট্যাগ ও আইডেন্টিফিকেশন নম্বর নিজেই ডাউনলোড করবেন ৷ প্রয়োজনে কাগজের স্লিপে পিএনআর নম্বর লিখে ব্যাগে আটকানো যাবে ৷

লাগেজের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট নিয়ম থাকছে ৷ একটি করে লাগেজ ও চেক ইন ব্যাগ নেওয়া যাবে ৷ সতর্কতা রেখেই সিকিউরিটি চেকিং হবে ৷ বিমান ছাড়ার এক ঘণ্টা আগে সিকিউরিটি চেকিং শেষ করতে হবে ৷ বিমানে ওঠার আগে সেফটি কিট দেবে বিমান সংস্থা ৷

বিমানের ভিতরেও একাধিক নিয়ম বিধি। মিলবে না খাবার, ম্যাগাজিন ৷ যাত্রীদের স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে ৷ যত সম্ভব কম শৌচাগার ব্যবহারের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে ৷ বিমানে ফিরলে কী ১৪ দিনের হোম কোয়ারান্টিনে থাকতে হবে? এনিয়ে আগের অবস্থান থেকে সরে এসেছে অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক। রবিবার নতুন নির্দেশিকায় বলা হয়েছেউপসর্গ না থাকলেও সব যাত্রীরই হোম কোয়ারান্টিনে থাকা উচিত। এর মধ্যে উপসর্গ দেখালে কোভিড হাসপাতালে যেতে হবে ৷

অর্থাৎ বাধ্যতামূলক কোয়ারান্টিনে থাকতে হচ্ছে না। তবে তামিলনাড়ু জানিযেছে চেন্নাই বিমানবন্দরে নামলে হোম কোয়ারেন্টাইন মাস্ট। কর্ণাটকও কিছু ক্ষেত্রে যাত্রীদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

কলকাতা বিমানবন্দর অবশ্য সোমবারই ঝাঁপ খুলছে না। কলকাতায় ২৮ মে থেকে শুরু বিমান চলাচল। আমফানের ধাক্কা সামলাতে প্রশাসন ব্যস্ত। সেই কারণেই এই দেরি।

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: May 24, 2020, 9:46 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर