Covid-19 Crisis: বিপদ সংকেত! মহারাষ্ট্র-দিল্লিতে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত প্রায় ১ লক্ষ! কোন পথে মোকাবিলা?

Covid-19 Crisis: বিপদ সংকেত! মহারাষ্ট্র-দিল্লিতে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত প্রায় ১ লক্ষ! কোন পথে মোকাবিলা?

শনিবার ফের রেকর্ড গড়েছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা (Corona Positive Cases)। মহারাষ্ট্র (Maharashtra) এবং দিল্লি (Delhi) মিলিয়ে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯১,৫০০।

শনিবার ফের রেকর্ড গড়েছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা (Corona Positive Cases)। মহারাষ্ট্র (Maharashtra) এবং দিল্লি (Delhi) মিলিয়ে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯১,৫০০।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: করোনার দ্বিতীয় (COVID-19 Second Wave) ঢেউ সামাল দেওয়া যাচ্ছে না। যেভাবে সংক্রমণ (Corona Positive) বাড়ছে, তাতে প্রত্যেককে চিকিৎসা দেওয়াই প্রশাসনের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ। শনিবার ফের রেকর্ড গড়েছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। মহারাষ্ট্র (Maharashtra) এবং দিল্লি (Delhi) মিলিয়ে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯১,৫০০। যা বিগত দিনের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে চুরমার (Highest Single day Spike) করে দিয়েছে। এ কথা বলার অপেক্ষা রাখে না সংখ্যাটা চোখের পলকে লক্ষাধিক হয়ে যাবে।

    ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে দেশে করোনা আক্রান্তের (Corona Positive) সংখ্যা ছিল দিনে কম-বেশি ১০ হাজার। দিল্লিতে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১০০/১৫০। সেই সংখ্যা মার্চের মাঝামাঝিতে এসে দাঁড়িয়েছে হাজার হাজার। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শনিবার দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৬ লক্ষ পেরিয়েছে। বর্তমানে দেশে অ্যাক্টিভ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৬,৭৯,৭৪০। রাজধানীর করোনা গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী, স্বাস্থ্য মন্ত্রক বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়েছে, "রাজ্যের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা যথেষ্ট উদ্বেগজনক (Alerming Situation)।" ২৪ ঘণ্টায় দিল্লিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৪,০০০। মৃত্যু হয়েছে

    তবে এত খারাপের মধ্যেও আশার আলো কুম্ভ স্নান বন্ধের সিদ্ধান্ত। এ দিন কুম্ভ স্নান বন্ধের ঘোষণা করা হয়েছে। পাশাপাশি, দিল্লি থেকে যে সব পূণ্যর্থীরা গিয়েছেন কুম্ভমেলা (Kumbh Mela Super Spreader) অংশ নিতে, তাঁদের ফিরে এসে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে (home quarantine) থাকতেই হবে৷ এমনই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ দিল্লি থেকে ৪ এপ্রিল হরিদ্বারের (Haridwar) কুম্ভে যাঁরা অংশ নিতে গিয়েছেন, তাঁদের নাম নথিভুক্ত করতে হবে৷ দিল্লি সরকারের ওয়েবসাইটে নাম সহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় তথ্যও তুলে ধরতে হবে৷ যদি কেউ এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন, তাহলে তাঁদের বিরুদ্ধে নেওয়া হবে আইনি পদক্ষেপ এবং দিতে হবে মোটা টাকার জরিমানা৷ এমনই নির্দেশ দিল্লি বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর (Delhi Disaster Management Authority)৷

    প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি শুক্রবার আবেদন করেন কুম্ভ বন্ধ করার৷ এরপরই উদ্বেগজনক করোনা (Coronavirus in India) পরিস্থিতির কারণেই শনিবার মেলা অবিলম্বে বন্ধ করার কথা ঘোষণা করেন শ্রী পঞ্চ দশনম জুনা আখড়ার প্রধান স্বামী অভদেশানন্দ গিরি৷ তবে এখনও কয়েকটি আখড়া পরবর্তী শাহি স্নানগুলির পক্ষে রয়েছে৷ তার মধ্যে রয়েছে নির্মোহি, নির্ভানি এবং দিগম্বরের মতো কয়েকটি আখড়া৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আবেদনকে স্বাগত জানিয়েও বৈরাগী আখড়া জানিয়েছে, আগামী ২৭ এপ্রিল শাহি স্নান বন্ধ করবে না তারা৷ তবে ভক্তদের শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে অনুরোধ করেছেন তারা৷

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: