• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • EXCLUSIVE: লিখিত পরীক্ষার বদলে 'অ্যাসাইনমেন্ট ফ্রম হোম', করোনা আবহে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে আসতে পারে এমনই পরিবর্তন

EXCLUSIVE: লিখিত পরীক্ষার বদলে 'অ্যাসাইনমেন্ট ফ্রম হোম', করোনা আবহে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে আসতে পারে এমনই পরিবর্তন

 ইতিমধ্যেই এই বিষয় নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় স্তরে একপ্রস্থ আলোচনা হয়ে গেছে বলে জানা গিয়েছে। মূলত এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে ফাইনাল সেমিস্টারের পরীক্ষা নিলেও হস্টেলে আবাসিকদের রাখা নিরাপদ নয় বলেই মনে করছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ।

ইতিমধ্যেই এই বিষয় নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় স্তরে একপ্রস্থ আলোচনা হয়ে গেছে বলে জানা গিয়েছে। মূলত এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে ফাইনাল সেমিস্টারের পরীক্ষা নিলেও হস্টেলে আবাসিকদের রাখা নিরাপদ নয় বলেই মনে করছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ।

ইতিমধ্যেই এই বিষয় নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় স্তরে একপ্রস্থ আলোচনা হয়ে গেছে বলে জানা গিয়েছে। মূলত এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে ফাইনাল সেমিস্টারের পরীক্ষা নিলেও হস্টেলে আবাসিকদের রাখা নিরাপদ নয় বলেই মনে করছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ।

  • Share this:

 #কলকাতা: কোন লিখিত পরীক্ষা নয়,তার বদলে 'অ্যাসাইনমেন্ট ফ্রম হোম' এই পদ্ধতিতেই ছাত্র-ছাত্রীদের করোনা পরিস্থিতিতে মূল্যায়ন করতে চায় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়।চলতি সপ্তাহেই এই বিষয় নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের। ইতিমধ্যেই এই বিষয় নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় স্তরে একপ্রস্থ আলোচনা হয়ে গেছে বলে জানা গিয়েছে। মূলত এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে ফাইনাল সেমিস্টারের পরীক্ষা নিলেও হস্টেলে আবাসিকদের রাখা নিরাপদ নয় বলেই মনে করছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ।

বিশেষত করোনাভাইরাস রাজ্যজুড়ে সংক্রমণের জেরে হস্টেলে আবাসিকদের এখনই রাখার পক্ষপাতী নয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।তার জন্যই অ্যাসাইনমেন্ট ফ্রম হোম এই পদ্ধতিতেই ফাইনাল ইয়ারের ছাত্র ছাত্রীদের এবারের জন্য মূল্যায়ন করতে চায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এ প্রসঙ্গে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য চিরঞ্জীব ভট্টাচার্য্য জানিয়েছেন " আমরা ছাত্র-ছাত্রীদের পরীক্ষা নেওয়ার জন্য অনেক বিষয় নিয়ে ভাবনা চিন্তা করছি। বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা চলছে। আশা করছি খুব শীঘ্রই এই বিষয় নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আমরা পৌঁছাতে পারব।"

গত সপ্তাহে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় উপাচার্যদের লকডাউন ওঠার এক মাসের মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে পরীক্ষা নেওয়ার কথা জানিয়েছেন। ইতিমধ্যেই শিক্ষামন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্স এর পরেই কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে পরীক্ষা নিয়ে নির্দেশিকা জারি করেছে। তাদের তরফে নির্দেশিকা দিয়ে জানানো হয়েছে লকডাউন ওঠার এক মাসের মধ্যেই স্নাতক ও স্নাতকোত্তর স্তরের ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষা নেওয়া হবে।সেই বিষয় কলেজ গুলিকে প্রস্তুতি ও নিতে বলা হয়েছে। তবে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় আপাতত লিখিত পরীক্ষার দিকে যেতে চাইছে না বলেই বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর।

লকডাউন ওঠার এক মাসের মধ্যে পরীক্ষা নিতে হলে সে ক্ষেত্রে অ্যাসাইনমেন্ট ফ্রম হোম এই পদ্ধতিতেই ছাত্র-ছাত্রীদের মূল্যায়নের চিন্তাভাবনাই শুরু করেছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকেই ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ফাইনাল ইয়ারের ছাত্র ছাত্রীরা চাকরিতে যোগ দেবেন। সে ক্ষেত্রে জুন মাসের মধ্যেই ইন্জিনিয়ারিং পড়ুয়াদের রেজাল্ট হাতে দিতে হবে। সেক্ষেত্রে  ইঞ্জিনিয়ারিং এর ফাইনাল ইয়ারের ছাত্র-ছাত্রীদের প্রাথমিকভাবে এই অ্যাসাইনমেন্ট ফ্রম হোম এই পদ্ধতিতে মূল্যায়ন করার পক্ষপাতি বিশ্ববিদ্যালয়। অনলাইনে পরীক্ষা নিলেও রাজ্যের অনেক জায়গা বা অন্যান্য রাজ্যের থেকে আসা ছাত্রছাত্রীদের কাছে ইন্টারনেট সংযোগ নাও থাকতে পারে। সে ক্ষেত্রে অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যা তৈরি হতে পারে বলে মনে করছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। যদিও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে বিশ্ববিদ্যালয় বিভিন্ন বিভাগের অধ্যাপক ও ছাত্র সংগঠন গুলির মত নেওয়া হচ্ছে বলে বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে।

Somraj Bandopadhyay

Published by:Elina Datta
First published: