করোনা আতঙ্ক বৃদ্ধাশ্রমে !

Representational Image

Representational Image

হুগলির সুগন্ধায় এক বৃদ্ধাশ্রমে প্রায় ২৫ জন বরিষ্ঠ নাগরিক থাকেন। করোনার আতঙ্ক থাবা বসিয়েছে এই বৃদ্ধাশ্রমেও।

  • Share this:

    #হুগলি: ‘‘আমার ঠিকানা তাই বৃদ্ধাশ্রম..." কেউ হয়তো একটু ঝুঁকে চলেন, কারোর চোখের দৃষ্টি ঝাপসা হয়ে এসেছে ৷ কেউ আবার এই বয়সেও সুঠাম দেহ। এনারা সবাই সমাজের বরিষ্ঠ নাগরিক। কেউ সংসারে চাপে, কেউ একাকিত্বের কারনে, কেউবা বাধ্য হয়েই এসে উঠেছেন বৃদ্ধাশ্রমে।

    হুগলির সুগন্ধায় এক বৃদ্ধাশ্রমে প্রায় ২৫ জন বরিষ্ঠ নাগরিক থাকেন। করোনার আতঙ্ক থাবা বসিয়েছে এই বৃদ্ধাশ্রমেও। এমনিতে খুব একটা বাইরে বেরোনোর প্রয়োজন পরে না ৷ করোনার আতঙ্কের পর থেকে নিজেদের আরোই গুটিয়ে নিয়েছেন এখানকার আবাসিকরা। আবাসনের গেটের বাইরে ঝুলছে করোনা সতর্কতার বোর্ড। সেখানে নির্দেশিকা, যে কোনও লোককে আবাসনে ঢুকতে গেলে পাশের বেসিনে সাবান দিয়ে হাত ভাল করে ধুয়ে ঢুকতে হবে।

    এমনিতেই বয়স কালের খাওয়াতে অনেক বিধি-নিষেধ থাকে ৷ তার ওপর করোনার জন্য মাংস এবং ডিম-কে ব্রাত্য করেছেন আবাসিকরা। মেনুতে এখন টাটকা শাক সবজির সঙ্গে শুধুই টাটকা মাছ। অনেকের মনেই আতঙ্ক জানালেও দু'একজন বরিষ্ঠ নাগরিক করোনা নিয়ে অযথা ভাবতে নারাজ,বলছেন যা হবার তা তো হবেই। কিন্তু সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে কিছু কিছু বিধিনিষেধ তারা মেনে চলছেন। একসাথে গল্প, আড্ডা সবই চলছে। জন্মদিনের স্পেশাল মেনুতে পায়েস দিয়ে সহ-আবাসিককে খাবার পরিবেশনও হচ্ছে। কিন্তু সবই একটু সতর্ক হয়ে, মনে হয়তো একটু ভয় আর আশঙ্কা নিয়ই।

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: