‘দেশ করোনার মতো সাংঘাতিক বিপদের সম্মুখীন, এখন লোক হাসানো বন্ধ করুন’, প্রধানমন্ত্রীকে ট্যুইটে কটাক্ষ রাহুলের

‘দেশ করোনার মতো সাংঘাতিক বিপদের সম্মুখীন, এখন লোক হাসানো বন্ধ করুন’, প্রধানমন্ত্রীকে ট্যুইটে কটাক্ষ রাহুলের
RAHUL GANDHI WISHESH KEJRIWAL AFTER DELHI ELECTION RESULTS

একজন সত্যিকারের নেতার দেশের এমন আপৎকালীন পরিস্থিতিতে সমস্ত মনোযোগ শুধু বিপদকে কি করে কাটানো যায় সেদিকে দেওয়া উচিত,বলেন রাহুল

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: যা ভয় ছিল তাই সত্যি হল ৷ শত সতর্কতা সত্ত্বেও ভারতে ঢুকে পড়ল করোনা ভাইরাস ৷ দিল্লি ও বেঙ্গালুরুতে Covid-19-এ আক্রান্তের ঘটনা সামনে আসার পর ট্যুইটে প্রধানমন্ত্রী মোদিকে কটাক্ষ রাহুলের ৷ একজন সত্যিকারের নেতার দেশের এমন আপৎকালীন পরিস্থিতিতে সমস্ত মনোযোগ শুধু বিপদকে কি করে কাটানো যায় সেদিকে দেওয়া উচিত ৷ এই মুহূর্তে এমন ভাইরাসের থাবা ভারতে ৷ শুধু দেশের নাগরিকদের স্বাস্থ্যেই নয়, এর প্রভাব পড়তে চলেছে অর্থনীতিতেই ৷

সোমবার রাত থেকেই প্রধানমন্ত্রীর ট্যুইট নিয়ে সরগরম সোশ্যাল মিডিয়া ৷ মোদির ট্যুইটে জল্পনা ছড়ায় সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়ছেন প্রধানমন্ত্রী ৷ কিন্তু পরে মঙ্গলবার ট্যুইট করে সেই বিষয়টি নিজেই পরিষ্কার করেন তিনি ৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ট্যুইট করেন, ‘তিনি একদিনের জন্য সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়তে চাইছেন৷ আর সেটি নারী দিবস উপলক্ষে৷ এদিন ট্যুইটারে তিনি লিখলেন, ‘এই ‘নারী দিবসে’ আমি আমার সব সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট উৎসর্গ করলাম সেই সব নারীদের, যাঁদের জীবন আর কাজ আমাদের অনুপ্রাণিত করেছে৷ এর ফলে লক্ষ লক্ষ মহিলার মধ্যে নতুন করে আরও কাজের উৎসাহ বাড়বে৷ আপনিও কি এমন একজন মহিলা, যিনি অনুপ্রেরণা হয়ে উঠতে পারেন? বা এমন কাউকে চেনেন যাঁর কাজ অনুপ্রেরণা জোগায়? তাহলে আমাদের সঙ্গে ভাগ করে নিন৷’
প্রধানমন্ত্রীর এমন ট্যুইটের পরই রাহুল গান্ধির নিশানায় মোদি ৷ তাঁর এই উদ্যোগকে কটাক্ষ করে রাহুল লেখেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট নিয়ে লোক হাসিয়ে দেশের সময় নষ্ট করা বন্ধ করুন ৷ বিশেষত গোটা দেশ যখন করোনার মত ভয়ঙ্কর বিপদের সম্মুখীন ৷’ এর আগেও করোনা ভাইরাস নিয়ে কেন্দ্র কী ব্যবস্থা নিচ্ছে সেই নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন রাহুল গান্ধি ৷ গত ১২ ফেব্রুয়ারি রাহুল বলেছিলেন, মোদি সরকার করোনা নিয়ে যথেষ্ট সতর্ক নয় ৷ এদিনই দিল্লি ও বেঙ্গালুরুতে দু’জনের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা সামনে এসেছে ৷ এছাড়াও সন্দেহজনক রোগীর তালিকাতেও রয়েছেন অনেকে ৷
First published: March 3, 2020, 5:07 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर