corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউন উপেক্ষা চলছিল জুয়ার আসর! পুলিশ তাড়া করতে ভয়ে সোজা নদীতে ঝাঁপ, তারপর যা হল...

লকডাউন উপেক্ষা চলছিল জুয়ার আসর! পুলিশ তাড়া করতে ভয়ে সোজা নদীতে ঝাঁপ, তারপর যা হল...

ফুলেশ্বরী নদীর পাশে জমিয়ে চলছিল জুয়ার আসর। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে হানা দেয় পুলিশ।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: লকডাউন ভাঙলেই বিপদ! কড়াকড়ি জারি শিলিগুড়িতে। অতি সক্রিয় পুলিশ। রাস্তায় খোদ পুলিশ কমিশনার। সঙ্গে দার্জিলিংয়ের জেলাশাসকও। শহরের বিভিন্ন এলাকাতেই চলছে ধরপাকড়। শুরুটা করে শিলিগুড়ির ১৮ নং ওয়ার্ডের রানা বস্তি দিয়ে। লকডাউন উপেক্ষা করে বস্তির রাস্তায় থিক থিক ভিড়। খবর পেয়েই হানা শিলিগুড়ি থানার আই সি'র নেতৃত্বে টহল বিশাল পুলিশ বাহিনীর। বস্তিতে চলে অভিযান। গ্রেফতার বহু।

তারপরই পুলিশ হানা দেয় ফুলেশ্বরী বাজারে। ফুলেশ্বরী নদীর পাশে জমিয়ে চলছিল জুয়ার আসর। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে হানা দেয় পুলিশ। এক জুয়ারিকে হাতেনাতে ধরে ফেলে পুলিশ। বাকি সঙ্গীরা পালিয়ে যায়। পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে দুই যুবকের সোজা ঝাঁপ ফুলেশ্বরী নদীতে! পুলিশ এবং জীবন দুয়ের থেকেই অল্পের জন্যে রক্ষা পেল দুই যুবক!

শহরের অন্য প্রান্তেও চলে পুলিশি তল্লাশি। শহরজুড়ে আজও চলে নাকাবন্দী। সব মোড়েও পুলিশি নাকা তল্লাশি চলে। জরুরী কাজ ছাড়া বাড়ির বাইরে পা পড়লেই ঠিকানা হচ্ছে পুলিশের গাড়ি। চম্পাসারি মোড় থেকে বিবাদী চক, বিবেকানন্দ চক থেকে মহাত্মা গান্ধী মোড়, শহীদ ক্ষুদিরাম মোড় থেকে হাসমি চক। বন্ধ করে দেওয়া হয় অবাঞ্চিত যাতায়াত। আইন ভাঙলেই কড়া ব্যবস্থা।

অন্যদিকে আজ থেক্বি বিধান মার্কেটের সবজি বাজার বসেছে কাঞ্চনজঙ্ঘা মেলা মাঠে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বসানো হয়েছে দোকান। সোমবার এই বাজার পরিদর্শনে আসেন দার্জিলিংয়ের জেলাশাসক পোন্নামবালাম এস এবং পুলিশ কমিশনার ত্রিপুরারি। বাজারে সামাজিক দূরত্ব মেনে কেনাবেচা হচ্ছে কি না, তা খতিয়ে দেখেন। সঙ্গে ছিলেন স্থানীয় কাউন্সিলর নান্টু পালও। নিয়ম মেনেই বাজারে বসতে হবে বিক্রেতাদের, সাফ জানিয়ে দিয়েছেন পুলিশ কমিশনার। তেমনি ক্রেতাদেরও মাস্ক পড়ে বাজারে আসতে হবে। সেইসঙ্গে সামাজিক দূরত্ব মেনেই কেনাকাটা করতে হবে। নজরদারি চালাবে পুলিশ। লকডাউনের নিয়ম ভাঙলেই গ্রেফতার করা হবে।

Partha Pratim Sarkar

Published by: Elina Datta
First published: April 20, 2020, 4:12 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर