কেরলে আটকে মালদহের রতুয়ার একদল শ্রমিক, কমে এসেছে টাকা, অমিল খাবার, মুখ্যমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে ভিডিও

ভিডিও বার্তায় খাবার যোগান এবং ঘরে ফেরানোর আর্জি শ্রমিকদের।

ভিডিও বার্তায় খাবার যোগান এবং ঘরে ফেরানোর আর্জি শ্রমিকদের।

  • Share this:

 #মালদহ: কেরলে কাজে গিয়ে আটকে পড়েছেন মালদহের রতুয়ার একদল শ্রমিক। কমে এসেছে টাকা, অমিল খাবার। কার্যত, অর্ধাহারে দিন কাটছে এদের। ভিডিও বার্তায় খাবার যোগান এবং ঘরে ফেরানোর আর্জি শ্রমিকদের। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে ভিডিও বার্তায় বিপদে পাশে দাড়ানোর আবেদন জানানো হয়েছে। শ্রমিকদের প্রত্যেকেই মালদহের রতুয়ার পশ্চিম রুকুন্দিপুরের বাসিন্দা।

কেরলের এর্নাকুলাম জেলার সাউথ পারুল এলাকায় আটকে রয়েছেন মালদহের পনের জন শ্রমিক। কেরলের আলুভা এলাকায় আটকে মালদহের আরও পঁচিশ জন। এদের প্রত্যেকেই নির্মান শ্রমিক। গত প্রায় তিন মাস ধরে কেরলে নির্মান কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।  শ্রমিকরা জানিয়েছেন, স্থানীয় ঠিকাদারের মাধ্যমে তাঁরা কাজে গিয়েছিলেন। এর্নাকুলামে একটি ঘরে কোনোরকমে মাথা গুঁজে রয়েছেন তাঁরা। বাইরে দোকান বাজার প্রায় সবই বন্ধ। অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রী জোগার করতে হিমসিম খেতে হচ্ছে। হাতে থাকা টাকা পয়সাও কমে এসেছে। ফলে তাঁদের পক্ষে আর ওই এলাকায় থাকা  সম্ভব নয়। ভিডিও বার্তায় আটকে পড়া শ্রমিকরা জানিয়েছেন তাঁরা অবিলম্বে বাংলায় ফিরতে চান। কিন্তু যোগাযোগ ব্যবস্থা না থাকায় বাড়িতে ফেরা সম্ভব হচ্ছে না। আবার দৈনন্দিন খাবার জোগার করাও সমস্যা হয়ে দাড়িয়েছে। এই অবস্থায় বাড়ি ফেরার জন্য রাজ্য সরকার ও কেন্দ্রীয় সরকারের হস্তক্ষেপ প্রার্থনা করেছেন শ্রমিকেরা। গ্রামে পাঠানো তাঁদের ভিডিও বার্তায় রতুয়ার রুকুন্দিপুর গ্রামেও দুশ্চিন্তায় আত্মীয় পরিজনেরা। একমাত্র সরকারি সাহায্যই ভরসা আটকে পড়া শ্রমিকদের।

Sebak Deb Sharma

Published by:Elina Datta
First published: