corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনায় মৃত ব্যক্তির সৎকারে পরিবারকে হেনস্থা, 'আধ-পোড়া' দেহ রেখে পালল আত্মীয়রা!

করোনায় মৃত ব্যক্তির সৎকারে পরিবারকে হেনস্থা, 'আধ-পোড়া' দেহ রেখে পালল আত্মীয়রা!
Representative Image

৭২ বছরের করোনায় মৃত ব্যক্তির শেষকৃত্যের জন্য হাজির ছিলেন শুধুমাত্র তাঁর দুই ছেলে ও স্ত্রী৷

  • Share this:

#জম্মু: করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির শেষকৃত্য নিয়ে চলল ধুন্ধুমার৷ এতটা হাতের বাইরে চলে গেল পরিস্থিতি যে মৃত ব্যক্তির দেহ আধ-পোড়া অবস্থায় রেখে পালিয়ে যেতে বাধ্য হল পরিবার৷! জম্মুর ডোডা জেলার ঘটনা৷ এই নিয়ে জম্মুতে ৪জনের মৃত্যু হল করোনা সংক্রমণে৷

সবে মাত্র শেষকৃত্যের কাজ শুরু হয়েছিল৷ উপস্থিত ছিলেন একজন সরকারি আধিকারিক ও মেডিকেল টিমও৷ দোমানায় শ্মশানে তখনই প্রচুর সংখ্যক স্থানীয় উপস্থিত হন৷ এবং শেষকৃত্যের কাজ বাধা দেন, জানান মৃতের পুত্র৷

তিনি আরও জানান যে স্থানীয়রা তাদের লক্ষ্য করে পাথর ছুঁড়তে থাকেন৷ ৭২ বছরের করোনায় মৃত ব্যক্তির শেষকৃত্যের জন্য হাজির ছিলেন শুধুমাত্র তাঁর দুই ছেলে ও স্ত্রী৷ মৃতের দেহ আধ-পোড়া অবস্থায় রেখেই তাদের সেখান থেকে পালিয়ে আসতে হয়৷

আরও পড়ুন দাহ করার পর শোকাহত পরিবারকে জানানো হল করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি নাকি জীবিত!

মৃতের দেহ তাঁর বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানান তার পরিবার৷ কিন্তু করোনায় মৃত বলে নির্দিষ্ট নিময় মেনে করতে হয় সৎকার৷ তাই বাড়ি নিয়ে যাওয়ার অনুমতি দেয়নি কর্তৃপক্ষ৷ বলা হয় যেখানে বৃদ্ধ মারা গিয়েছেন সেখানে পোড়ানোর সব ব্যবস্থা করা হয়েছে৷ মৃতের ছেলের অভিযোগ যে, পুলিশ ঘটনার সাক্ষী থাকলেও তাদের কোনও সাহায্য করনি তারা৷ তবে অ্যাম্বুলেন্স চালক ও হাসপাতালের কর্মীরা দেহ ফের হাসপাতালে নিয়ে যেতে সাহায্য করেন৷

করোনার যারা মারা যাচ্ছেন, তাদের এবং তাদের পরিবারকে নানাভাবে হেনস্থা করা হচ্ছে, তাই প্রশাসনের উচিৎ তাদের পাশে দাঁড়ানোর, দাবি জম্মুর এই পরিবারের৷ বিধি মেনে শেষকৃত্য করার জন্যও সরকার সাহায্য করুক বলে আর্জি জানান তারা৷ কারণ তারা চান না যে অভিজ্ঞতা তাদের হয়েছে, তা অন্য কারোর হোক৷

পরে ভাগবতী নগরের কাছে শ্মশানে কড়া নিরাপত্তায় শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় ৭২ বছরের বৃদ্ধের৷

Published by: Pooja Basu
First published: June 3, 2020, 1:36 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर