করোনার জেরে চিন থেকে আমদানি প্রায় বন্ধ, প্রভাব পড়েছে ভারতের ওষুধ বাজারে

করোনার জেরে চিন থেকে আমদানি প্রায় বন্ধ, প্রভাব পড়েছে ভারতের ওষুধ বাজারে

অ্যান্টিবায়োটিক, ভিটামিন, স্টেরয়েড, অ্যান্টি-ডায়াবেটিক, হৃদ্‌রোগের ওষুধ, ব্যথার ওষুধের মতো ৫৮ ধরনের ওষুধের উপাদানের জন্য মূলত চিনের উপর ভারত নির্ভর করে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: করোনা ভাবাচ্ছে ভারতের ওষুধ বাজারকে। ৫৮ ধরনের ওষুধের উপাদানের জন্য মূলত চিনের উপর নির্ভরশীল ভারত। কিন্তু, করোনার জেরে চিন থেকে আমদানি প্রায় বন্ধ। তাই ভারতের ওষুধ বাজারে সিঁদুরে মেঘ। ওষুধ ও তার কাঁচামালের জন্য চিনের উপর অতিরিক্ত নির্ভরশীল ভারত।

অ্যান্টিবায়োটিক, ভিটামিন, স্টেরয়েড, অ্যান্টি-ডায়াবেটিক, হৃদ্‌রোগের ওষুধ, ব্যথার ওষুধের মতো ৫৮ ধরনের ওষুধের উপাদানের জন্য মূলত চিনের উপর ভারত নির্ভর করে।

কিন্তু চিনে নোভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের পর থেকে সে দেশের কার্যত ৯৯ শতাংশ ওষুধ ও কাঁচামালের কারখানায় উৎপাদন বন্ধ গত প্রায় এক মাসের বেশি সময় ধরে চিন থেকে ওষুধ আমদানি করতে পারছে না ভারত ৷ যদিও কেন্দ্রীয় সরকারের আশ্বাস ওষুধ নিয়ে দুশ্চিন্তার কারণ নেই তবু, ভারতের ওষুধ বাজারে দুশ্চিন্তার মেঘ ৷ অনেকেরই আশঙ্কা, আগামী কয়েক মাসের মধ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলেই সমস্যা।

ভারতে প্রতি বছর যা ওষুধ আমদানি হয় তার ৭০ শতাংশ আসে চিন থেকেচিন থেকে ভারত ৫৮ ধরনের ওষুধ তৈরির উপাদান আমদানি করেভারতে যত অ্যান্টিবায়োটিক প্রয়োজন তার ৯০ শতাংশ আসে চিন থেকেপ্রতি বছর ওষুধ আমদানি করতে ভারতের প্রায় ২৮ হাজার কোটি টাকা খরচ হয়। এর বেশির ভাগটাই খরচ হয় চিন থেকে ওষুধ আমদানিতেভারতের ওষুধ বাজারের নজর তাই করোনার দিকে। চিনের দিকে।

First published: March 5, 2020, 8:38 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर