• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • করোনা ভ্যাকসিনে মানুষ কুমির হয়, মেয়েদের দাড়ি গজায়, দাবি ব্রাজিলের প্রেসিডেন্টের

করোনা ভ্যাকসিনে মানুষ কুমির হয়, মেয়েদের দাড়ি গজায়, দাবি ব্রাজিলের প্রেসিডেন্টের

নিজে আক্রান্ত হওয়া সত্ত্বেও মত বদলায়নি। বরং এখন ভ্যাকসিন নিয়েও আশ্চর্যজনক মতামত করে বসেন তিনি।

নিজে আক্রান্ত হওয়া সত্ত্বেও মত বদলায়নি। বরং এখন ভ্যাকসিন নিয়েও আশ্চর্যজনক মতামত করে বসেন তিনি।

নিজে আক্রান্ত হওয়া সত্ত্বেও মত বদলায়নি। বরং এখন ভ্যাকসিন নিয়েও আশ্চর্যজনক মতামত করে বসেন তিনি।

  • Share this:

    #ব্রাজিল:গোড়া থেকেই প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসটিকে ‘সামান্য ফ্লু’ বলে তুচ্ছতাচ্ছিল্য করেছিলেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেইর বোলসোনারো। পরে নিজে আক্রান্ত হলেও মত বদলায়নি। বরং এখন ভ্যাকসিন নিয়েও আশ্চর্যজনক মতামত করে বসেন তিনি। সম্প্রতি ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট দাবি করেছেন, করোনা ভ্যাকসিন মানুষকে কুমির বানিয়ে দিতে পারে। এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় ছেলেরা মহিলা কন্ঠে কথা বলবে আর মেয়েদের দাড়ি উঠবে। তাই নিজে তিনি কখনও এই ভ্যাকসিন নেবেন না বলে ঘোষণা করেন ৷ বৃহস্পতিবার ব্রাজিলে কোভিড ভ্যাক্সিন চালুর কথা ঘোষণা করে প্রেসিডেন্ট বলেন, ফাইজারের সঙ্গে চুক্তিতে বিষয়টি পরিষ্কার বলা হয়েছে যে তারা  কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার জন্য দায়ী নন। অর্থাৎ, যদি কেউ কুমিরে রূপান্তরিত হয়ে যান, সেটা তাঁর সমস্যা৷ কিংবা কেউ যদি অতিমানবে (সুপারহিউম্যান) পরিণত হন, যদি কোনও নারীর দাড়ি উঠতে শুরু করে অথবা কোনও পুরুষ নারীকণ্ঠে কথা বলতে শুরু করেন, তাতেও তাদের কিছু করার থাকবে না। গত বুধবার টিকাদান কর্মসূচি উদ্বোধন করেই ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করেন, এটা বিনামূল্যে হলেও বাধ্যতামূলক নয়। যদিও ব্রাজিলের সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দিয়েছে, করোনা ভ্যাকসিন নেওয়া বাধ্যতামূলক, কিন্তু কারও ওপর জোড় করা যাবে না৷ বলপ্রয়োগ করা যাবে না৷ অর্থাৎ, কর্তৃপক্ষ চাইলে ভ্যাকসিন না নেওয়ার কারণে মানুষজনকে জরিমানা কিংবা কোথাও প্রবেশ নিষিদ্ধ করতে পারবে। তবে জোর করে ভ্যাকসিন নিতে বাধ্য করা যাবে না। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের এই আদেশকে পরোয়া না করে জেইর বোলসোনারো বলেছেন, তিনি কখনওই করোনা ভ্যাকসিন নেবেন না। তিনি আরও বলেন, অনেকেই বলবে, তিনি বাজে উদাহরণ সৃষ্টি করছেন। কিন্তু তাঁদেরকে নির্বোধ বলে কটাক্ষ করে তিনি জানান, ইতিমধ্যেই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় তাঁর দেহে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে। তাই ভ্যাকসিন নেওয়ার প্রয়োজন নেই৷ যদিও করোনায় একবার আক্রান্ত হলে আর হবে না- ব্রাজিলিয়ান প্রেসিডেন্টের এই দাবির পক্ষে এখনও তেমন কোনও বৈজ্ঞানিক প্রমাণ নেই বরং বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে বহু করোনা রোগী সুস্থ হয়ে ওঠার পর আবারও আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। ইতিমধ্যেই বিশ্বে সর্বোচ্চ করোনা সংক্রমিতে দেশের তালিকায় নাম লিখিয়েছে ব্রাজিল। দেশটিতে এপর্যন্ত অন্তত ৭১ লাখ আক্রান্ত এবং ১ লাখ ৮৫ হাজার মানুষ মারা গেছেন।  গত বৃহস্পতিবার ব্রাজিলে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক হাজারের বেশি মানুষ মারা গিয়েছেন, যা সেপ্টেম্বরের পর থেকে একদিনে সর্বোচ্চ প্রাণহানির রেকর্ড।

    Published by:Simli Dasgupta
    First published: