corona virus btn
corona virus btn
Loading

ফিরে এল আতঙ্ক!‌ চিনে ফের করোনা আক্রান্ত হয়ে পাঁচ জনের মৃত্যু, অসুস্থ ৪৫

ফিরে এল আতঙ্ক!‌ চিনে ফের করোনা আক্রান্ত হয়ে পাঁচ জনের মৃত্যু, অসুস্থ ৪৫
করোনা আক্রান্তদের উপর করা একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, আক্রান্তরা সবাই করোনার প্রাথমিক পর্যায়ে ছিলেন, তাড়াতাড়িই সুস্থ হয়ে যান। তাঁদের শরীরে করোনা ভাইরাসের আর কোনও উপসর্গও ছিল না। ফলে, তাঁদের স্বাভাবিক জীবনে ছেড়ে দেওয়া হয়। এরপরই ঘটে বিপত্তি। তাঁদের থেকে আশাপাশের অনেক মানুষের মধ্যে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ে।

সে দেশের স্বাস্থ্য কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, হুবেই নামক এলাকায় এই ভাইরাস নতুন করে ঘাঁটি গেড়েছে।

  • Share this:

#‌হুবেই:‌ চিনে ফিরে এল করোনা ভাইরাস। নতুন করে চিনের হেনান প্রদেশের হুবেই এলাকা থেকে ৪৫ জন আক্রান্তের খবর পাওয়া গিয়েছে। সেখানে মৃত্যু হয়েছে পাঁচজনের। রবিবার সকালে পাওয়া এই খবরে কেঁপে উঠেছে বিশ্ব। এর ফলে চিনে করোনায় মৃত্যুর মৃত্যুর সংখ্যা ৩৩০০ ছাড়িয়ে গিয়েছে। স্বাভাবিকভাবে সংবাদ সংস্থার খবরে যথেষ্ট উদ্বেগ ছড়াচ্ছে। কারণ একবার দেশ থেকে প্রায় মুছে যাওয়ার পরেও ফের নতুন করে এই রোগ কীভাবে ফিরে এল, তাই এখন চিন্তার কারণ চিনের!‌

সে দেশের স্বাস্থ্য কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, হুবেই নামক এলাকায় এই ভাইরাস নতুন করে ঘাঁটি গেড়েছে। সেখান থেকেই পাঁচজনের মৃত্যুর খবর এসেছে। এর আগে চিনের ইউহান প্রদেশে মূল কেন্দ্র তৈরি করেছিল এই করোনা ভাইরাস। এবার সেই জায়গা পরিবর্তন করে কেন্দ্র হতে চলেছে হুবেই। এরকমই আশঙ্কা প্রকাশ করেছে চীনের স্বাস্থ্য কমিশন।

রবিবার সকালের হিসেব অনুসারে, এখনো পর্যন্ত প্রায় ৮২ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন জায়গায় কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। এর আগেও একাধিকবার বলা হয়েছে আক্রান্তের শরীর ঠিক হয়ে যাওয়ার পরেও তিনি ফের আক্রান্ত হতে পারেন!‌ শরীরের মধ্যেই স্বাভাবিকভাবে তৈরি হওয়া প্রতিরোধ ক্ষমতা দিয়ে করোনাকে ঠিক করে রোধ করা যাচ্ছে না। যার ফলে এই রোগের প্রকোপ ফিরে আসছে। সে কথা সত্যি হওয়ায় চিনের মানুষ নতুন করে করোনার ভয়ে কাঁপছেন। এখনও পর্যন্ত পৃথিবীতে সাত লক্ষের কাছাকাছি মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যুর সংখ্যা পেরিয়ে গিয়েছে ৩০ হাজার। যার মধ্যে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ইতালিতে। ব্যাপক সংখ্যক মানুষের মৃত্যু হয়েছে আমেরিকায়, মৃত্যু হয়েছে চিনে। ভয়ানকভাবে আক্রান্ত হয়েছে ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশ।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: March 30, 2020, 12:17 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर