• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • আতঙ্ক তীব্র! ভারতে‌ একরাতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৯৫, পৃথিবীতে মৃতের সংখ্যা প্রায় ১০ হাজার

আতঙ্ক তীব্র! ভারতে‌ একরাতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৯৫, পৃথিবীতে মৃতের সংখ্যা প্রায় ১০ হাজার

PHOTO- REUTERS

PHOTO- REUTERS

সব মিলিয়ে পরিস্থিতি অত্যন্ত উদ্বেগের কারণ, নিয়ন্ত্রণে আসার নাম গন্ধ নেই এই মারণ ভাইরাসের

  • Share this:

    #‌নয়া দিল্লি: সারা পৃথিবীতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে। শুক্রবার সকালের হিসাব, করোনা আক্রান্ত হয়ে এখনও পর্যন্ত সারা পৃথিবীতে মৃত্যু হয়েছে ৯৮৮১ জনের। এদিকে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৯৫। যদিও মৃতের সংখ্যা এখনও ৪–ই রয়েছে।

    পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি মৃতের সংখ্যা রয়েছে ইতালিতে। ইতালির পরিসংখ্যান পার করে গিয়েছে চিনকেও। পৃথিবী জোড়া করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে দু’‌লক্ষ ৪২ হাজার। সব মিলিয়ে পরিস্থিতি অত্যন্ত উদ্বেগের কারণ, নিয়ন্ত্রণে আসার নাম গন্ধ নেই এই মারণ ভাইরাসের। এই মারণ ব্যাধির আক্রমণকে কেউ তুলনা করছেন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সঙ্গে, কেউ ২০০৮ সালের আর্থিক মন্দার সঙ্গে কেউ আবার ১৯১৮ সালের সোয়াইন ফ্লুর সঙ্গে। রাষ্ট্রসংঘের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এখনই ্দি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসে, তাহলে আগামী বেশ কয়েক মাস ধরে পৃথিবীতে এর ফলে মৃত্যু হতে পারে লক্ষ লক্ষ মানুষের।

    শেষ ২৪ ঘণ্টায় ইতালিতে এই মারণ ব্যাধিতে মৃত্যু হয়েছে ৪২৭ জনের!‌ ইতালিতে মোট মৃতের সংখ্যা পৌঁছে গিয়েছে ৩৪০৫–এ। যা চিনের সংখ্যাকেও পার করে গিয়েছে। এদিকে ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেছে, এফডিএ দ্বারা একটি করোনা নিরাময়কারী ওষুধ চিহ্নিত করা হয়েছে, দ্রুত সেটি কাজে লাগানো হবে। বিশ্বজুড়ে এই রোগ প্রতিরোধ করার ডাক দিয়েছে রাষ্ট্রসংঘের প্রধান আন্তেনিও গুয়াতারেজ। তিনি বলেছেন, এই অতিমারীকে এখনই রোধ না করলে আরও অসংখ্য মানুষের প্রাণ যেতে পারে। বিশ্ব অর্থনীতির ভঙ্গদশা নিয়েও তিনি বলেছেন পৃতিবীর সব দেশকে একসঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে।

    ভারতের আক্রান্তের সংখ্যা ১৯৫ হয়ে যাওয়ায় বেড়েছে উদ্বেগ। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে করোনা মোকাবিলা ও সচেতনতা তৈরির তাগিদে একটি বিশেষ হোয়্যাটস অ্যাপ নম্বর খোলা হয়েছে। সেই নম্বরে করোনা নিয়ে প্রশ্ন করলেই সহজে উত্তর পাওয়া যাচ্ছে। 9013151515 নম্বরটি যে কেউ সেভ করে নিয়ে হোয়াটস করলেই দেওয়া হচ্ছে তথ্য।

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: