হিংসা ছড়াতে অস্ত্র ফেক খবর-গুজব, বিজেপির দিকে অভিযোগের আঙুল মমতার

ফেক নিউজ থেকে নজর ঘোরাতে বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সম্প্রতি রাজ্যে এই লকডাউন ভেঙেও দু'একটি অশান্তির ঘটনা ঘটেছে। গুজব রুখতে আজ থেকেই হুগলিতে বন্ধ রাখতে হয়েছে ইন্টারনেট পরিষেবা

  • Share this:

    #কলকাতা: রাজ্যে লকডাউন চলছে। তার মধ্যেই বিক্ষিপ্ত ভাবে হিংসার অভিযোগ আসছে। বুধবার সকালেই জেলা সভাপতিদের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী এই কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার বার্তা জেলাশাসকদের। বিকেলে সাংবাদিক বৈঠকে সেই প্রসঙ্গ তুলে আনলেন নিজেই। বললেন, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ফেক নিউজ ছড়ানো হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগের আঙুল রাজ্যের প্রধান বিরোধী দলের দিকেই।

    বুধবার মুখ্যমন্ত্রী স্পষ্ট বলেন, হিংসা ছড়াতে নানা রকম মিথ্যে কথা রটানো হচ্ছে আইটি সেলকে ব্যবহার করে। মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য, কোভিড মোকাবিলায় ব্যর্থতা ঢাকতেই এই কাজ করা হচ্ছে। ফেক নিউজ ব্যবহার করে হিংসা ছড়ানো হচ্ছে। উদাহরণ হিসেবে তিনি মনে করিয়ে দেন, তিনি বলেছেলিএন ১০ জুন আইসিডিএস খুলবে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিযোগ, সেই কথা বিকৃত করা হয়েছে একটি বেসরকারি টিভি চ্যনেলের লোগো ব্যবহার করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়ানো হচ্ছে।

    তিনি বলেন," গরিব কৃষক শ্রমিককে সাহায্য না করে ফেক নিউজ ছড়ানো হচ্ছে।" মুখ্যমন্ত্রী সরাসরি রাজ্যের বিরোধী দলের নাম করেই এদিন অভিযোগগুলি করেন।

    সম্প্রতি রাজ্যে এই লকডাউন ভেঙেও দু'একটি অশান্তির ঘটনা ঘটেছে। গুজব রুখতে আজ থেকেই হুগলিতে বন্ধ রাখতে হয়েছে ইন্টারনেট পরিষেবা। মুখ্যমন্ত্রী এই অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে বার্তা দিচ্ছিলেন সেই টিকিয়াপাড়া কাণ্ড থেকেই। তখনও তিনি বলেছিলেন, অপরাধীদের শাস্তি হবে, সাম্প্রদায়িক হিংসা এই রাজ্যে চাই নাষ

    এদিন সকালেও মুখ্যমন্ত্রী বলেন যাদের ঘরবাড়ি পোড়ানো হয়েছে তাদের তালিকা বানাতে। হিংসায় জড়িত প্রত্যেকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন পুলিশকে। বিকেলে সাংবাদিক বৈঠকে থেকে সাধারণ রাজ্যবাসীকে তিনি অনুরোধ করেন যাচাই না করে ফেক খবর বিশ্বাস করতে না।

    Published by:Arka Deb
    First published: