Coronavirus: চিনা গবেষণায় সাফল্য, করোনা 'নিষ্ক্রিয়' করতে এ বার ডিভাইজ তৈরি !

Coronavirus: চিনা গবেষণায় সাফল্য, করোনা 'নিষ্ক্রিয়' করতে এ বার ডিভাইজ তৈরি !

চিনা গবেষণায় সাফল্য, করোনা 'নিষ্ক্রিয়' করতে এবার ডিভাইজ তৈরি!

দক্ষিণ চিনের শেনজেন শহরে একটি সাংবাদিক সম্মেলনে এই তথ্য সামনে আনা হয়।

  • Share this:

#বেজিং: করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ নতুন করে ত্রাস ছড়িয়েছে। সেই আবহে আশার আলো দেখাচ্ছে ভারতের পড়শি দেশ চিন। সেই দেশের বিজ্ঞানীরা এমন একটি ডিভাইজ তৈরি করেছেন যা কি না ইলেকট্রন বিম ইরেডিয়েশন-এর (electron beam irradiation) সাহায্যে করোনাভাইরাস নিষ্ক্রিয় করতে পারে। এই বিশেষ প্রযুক্তিটি বিশেষজ্ঞদের একটি প্যানেল পর্যালোচনার পর পেশ করে। তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে এর প্রয়োগ তারা ধীরে ধীরে করবে। দক্ষিণ চিনের শেনজেন শহরে একটি সাংবাদিক সম্মেলনে এই তথ্য সামনে আনা হয়।

সিনহুয়া সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, এই পুরো প্রোজেক্টটিতে সঙ্গ দিয়েছে চিনের জাতীয় পারমাণবিক বিদ্যুৎ কর্পোরেশন (CGNPC), সিংহুয়া বিশ্ববিদ্যালয় (Tsinghua University), চিনা একাডেমি অফ সায়েন্সেস (CAS), শেনজেন ন্যাশনাল ক্লিনিকাল রিসার্চ সেন্টার ফর ইনফেকশন ডিজিস (SNCRCID)।

অন্য দিকে সারা বিশ্বময় সম্প্রতি এই অভিযোগ ওঠে যে চিন এই খবর ও কিছু তথ্য লুকাচ্ছে।বুধবার চিনের এক অভিজ্ঞ চিকিৎসক বলেন এই খবর এমন একটা দিনে এসেছে যখন, কোভিড-১৯ নিয়ে হু-র (WHO) নিয়োগ করা আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকদের সঙ্গে তথ্য ভাগ করে নিয়েছে দেশ। তাই এই খবর লুকানোর অভিযোগ একেবারেই ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন ওই চিকিৎসক।

মঙ্গলবার চিন ও হু-র যৌথ সমীক্ষা প্রকাশের পরে হু-র ডিরেক্টর জেনারেল বলেছেন, আন্তর্জাতিক তদন্তকারীদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্য অসম্পূর্ণ। কিন্তু দুই পক্ষের গবেষকদের কো-লিডার লিয়াং ওয়ানিয়ান (Liang Wannian) সাংবাদিকদের বলেছেন, উভয় পক্ষের গবেষকদের তদন্তের সময়ে একই তথ্য দেওয়া হয়। এমনটা একদমই নয় যে আন্তর্জাতিক তদন্তকারীদের আলাদা কিছু দেওয়া হয়।

তিনি আরও বলেন, "অবশ্যই, চীনা আইন অনুসারে, কিছু তথ্যের ছবি তোলা যায় না, তবে যখন আমরা উহানে একসঙ্গে এই সব বিশ্লেষণ করছিলাম, তখন সব ডেটাবেস দেখানো হয়েছে"। বিশেষজ্ঞ প্যানেলের সম্পূর্ণ ডেটাসেট এবং নমুনাগুলির অ্যাক্সেস নেই বলে বার বার যে অভিযোগ করা হয়, তার জবাবে লিয়াং বলেন সেই সময়ে কোনও বিজ্ঞানীর কাছে নিখুঁত তথ্য ছিল না। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তোলা অভিযোগ-কে তিনি অস্বীকার করেন এবং নির্দিষ্ট করে বলেন “প্রতিটি বাক্য, প্রতিটি উপসংহার, প্রতিটি তথ্য” প্রকাশের আগে দুই পক্ষকেই যাচাই করা দরকার!

Published by:Simli Raha
First published: