corona virus btn
corona virus btn
Loading

কবে, কোথায় প্রথম করোনা সংক্রমণ? চাপে পড়ে শ্বেতপ্রত্র প্রকাশ করল চিন

কবে, কোথায় প্রথম করোনা সংক্রমণ? চাপে পড়ে শ্বেতপ্রত্র প্রকাশ করল চিন
চিনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং৷ PHOTO- FILE

চিনে করোনা ভাইরাসের উৎসস্থল হলেও এখন সেদেশ তা অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে ৷ বরং করোনা ভাইরাস মহামারি বিশ্বের অন্যান্য অনেক দেশে চিনের থেকেও কয়েকগুণ ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে৷

  • Share this:

#বেজিং: করোনা ভাইরাস নিয়ে চিনের বিরুদ্ধে তথ্য গোপনের অভিযোগে সরব হয়েছে আমেরিকা সহ একাধিক দেশ৷ অভিযোগকে কেন্দ্র করে আন্তর্জাতিক মঞ্চে অনেকটাই কোণঠাসা হয়ে পড়েছে চিন৷ তবে ক্রমাগত চাপ বাড়তে থাকায় অবশেষে দেশে করোনা সংক্রমণ নিয়ে শ্বেতপত্র প্রকাশ করল বেজিং৷ চিনে কবে, কোথায় করোনা সংক্রমণের ঘটনা সামনে এসেছে, এই শ্বেতপত্রে সেই তথ্যই প্রকাশ করা হয়েছে৷

রবিবার চিন দাবি করেছে, করোনা সংক্রমণের প্রথম মামলাটি গত বছরের ২৭ ডিসেম্বর ইউহানে সামনে এসেছিল৷ তবে করোনা ভাইরাসের কারণে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হওয়া এবং মানব শরীর থেকে মানব শরীরে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার ঘটনা প্রথম চলতি বছরের ১৯ জানুয়ারি জানা যায় বলে দাবি করেছে বেজিং৷ চিনের দাবি, গত ১৯ জানুয়ারি একজনের শরীর থেকে অন্যের শরীরে সংক্রমণের এই ঘটনা সামনে আসার পরই তা রুখতে ব্যবস্থা নেওয়া হয়৷

তবে এ দিনও নিজেদের বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছে চিন৷ করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কথা গোপন করা নিয়ে আন্তর্জাতিক স্তরে ওঠা অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করে আত্মপক্ষসমর্থনে শ্বেতপত্রে বিশদে ব্যাখ্যাও দিয়েছে চিন৷

মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প সহ একাধিক দেশের রাষ্ট্রপ্রধানরা অভিযোগ করেছেন, চিন সময়মতো তথ্য না জানানোর কারণেই গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস৷ পরিস্থিতি সামাল দিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে৷

চিনে করোনা ভাইরাসের উৎসস্থল হলেও এখন সেদেশ তা অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে ৷ বরং করোনা ভাইরাস মহামারি বিশ্বের অন্যান্য অনেক দেশে চিনের থেকেও কয়েকগুণ ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে৷ আমেরিকা, ব্রাজিল, স্পেন, ইতালি, রাশিয়া, ভারত সহ বিভিন্ন দেশ এখন করোনার ধাক্কা সামাল দিতে লড়াই করে যাচ্ছে৷ যার জেরে গোটা বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬৮ লক্ষ ছাড়িয়ে গিয়েছে৷ মৃত্যু হয়েছে ৪ লক্ষেরও বেশি মানুষের৷

শ্বেতপত্রে চিন দাবি করেছে, গত ২৭ ডিসেম্বর ইউহানের একটি হাসপাতালে প্রথম বার করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীকে চিহ্নিত করা হয়৷ এর পরই বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নেয়৷ শ্বেতপত্রে আরও দাবি করা হয়েছে, সরকারের গঠিত একটি উচ্চ পর্যায়ের বিশেষজ্ঞ কমিটি গত ১৯ জানুয়ারি প্রথমবার জানায়, মানব দেহ থেকে অন্য মানুষের শরীরে করোনার সংক্রমণ ঘটতে পারে৷ এর পরই সংক্রমণ রুখতে যাবতীয় পদক্ষেপ করা হয়৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: June 8, 2020, 12:03 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर