• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • পরিস্থিতি অনুযায়ী আরও ছাড় চায় রাজ্যগুলি, মোদির কাছে দাবি জানাবেন মুখ্যমন্ত্রীরা

পরিস্থিতি অনুযায়ী আরও ছাড় চায় রাজ্যগুলি, মোদির কাছে দাবি জানাবেন মুখ্যমন্ত্রীরা

ফের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ PHOTO- FILE

ফের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ PHOTO- FILE

এক আমলা স্বীকার করে নিয়েছেন, গ্রিন এবং অরেঞ্জ জোনে বেশ কিছু অর্থনৈতিক কার্যকলাপে ছাড় দেওয়া হলেও বাস্তবে তার খুব একটা ইতিবাচক প্রভাব পড়েনি৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: পরিস্থিতি বিচার করে আরও কিছু বিষয়ে ধাপে ধাপে ছাড় দিক কেন্দ্রীয় সরকার৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে আজকের বৈঠকে সম্ভবত সেই প্রস্তাবই রাখতে চলেছেন অধিকাংশ মুখ্যমন্ত্রী৷ রবিবার কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেট সচিবের সঙ্গে রাজ্যের মুখ্যসচিবদের বৈঠকেই সেই আভাস পাওয়া গিয়েছে৷ ওই বৈঠকেও রাজ্যের মুখ্যসচিবরা তৃতীয় দফার লকডাউন শেষ হলে আরও কিছু ছাড় দেওয়ার জন্য কেন্দ্রের কাছে সওয়াল করেছেন৷

    আগামী ১৭ মে শেষ হতে চলেছে তৃতীয় দফার লকডাউন৷ তার পরে লকডাউন নিয়ে রণকৌশল কী হবে, তা পর্যালোচনা করতে সোমবার আরও একবার মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর শেষ বৈঠকে বাছাই করা কয়েকজন মুখ্যমন্ত্রীকেই কথা বলার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল৷ এবারের বৈঠকে অবশ্য সব মুখ্যমন্ত্রীদেরই কথা বলার সুযোগ দেওয়া হবে বলে একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে৷

    করোনা মোকাবিলায় গঠিত কেন্দ্রীয় সরকারের রেসপন্স টিমের সদস্য এক শীর্ষ আমলার কথায়, 'আমাদেরও মনে হয়েছে সব মুখ্যমন্ত্রীরাই পর্যায়ক্রমে লকডাউন শিথিল করার পক্ষে৷ পরবর্তী ধাপের গাইডলাইনে তাঁরা আরও কিছু ছাড় আশা করছেন৷ তবে আলোচনা করেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে৷'

    এই বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীরা ছাড়াও সব রাজ্যের মুখ্যসচিব, পুলিশের ডিজি, স্বরাষ্ট্র এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং ওই দফতরগুলির সচিবদের উপস্থিত থাকার কথা৷

    আরও এক আমলা স্বীকার করে নিয়েছেন, গ্রিন এবং অরেঞ্জ জোনে বেশ কিছু অর্থনৈতিক কার্যকলাপে ছাড় দেওয়া হলেও বাস্তবে তার খুব একটা ইতিবাচক প্রভাব পড়েনি৷ কারণ একদিকে যেমন শ্রমিকের অভাব রয়েছে, সেরকমই কাঁচামাল এবং উৎপাদিত পণ্যের সরবরাহ ব্যবস্থা এখনও স্বাভাবিক হয়নি৷ সেই সমস্যা মেটানোর উপরে এবার জোর দেওয়া হতে পারে৷ তবে অরেঞ্জ এবং গ্রিন জোনে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড স্বাভাবিক করতে রাজ্যগুলিকেও শিল্পমহলের সঙ্গে আলোচনায় বসে ধীরে ধীরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার উদ্যোগ নিতে হবে বলে মনে করছেন ওই আমলা৷

    কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্য অনুযায়ী, ৮ মে পর্যন্ত দেশের ২১৬টি জেলায় নতুন করে করোনা সংক্রমণের কোনও খবর মেলেনি৷ ৪২টি এমন জেলা রয়েছে যেখানে শেষ ২৮ দিনে নতুন করে কেউ করোনা আক্রান্ত হননি৷ ২৯টি এবং ৩৬টি জেলায় যথাক্রমে শেষ ২১ এবং ১৪ দিন নতুন সংক্রমণ ঘটেনি৷ আর দেশের ৪৬টি এমন জেলা রয়েছে, যেখানে শেষ ৭ দিনে নতুন করে কেউ করোনা আক্রান্ত হননি বলে খবর৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: