corona virus btn
corona virus btn
Loading

তিনদিনের মাথায় হাসপাতাল পরিদর্শনে কেন্দ্রীয় দল, পাল্টা কটাক্ষ মুখ্যসচিবের

তিনদিনের মাথায় হাসপাতাল পরিদর্শনে কেন্দ্রীয় দল, পাল্টা কটাক্ষ মুখ্যসচিবের
এদিন এভাবেই শহরের এপ্রান্ত থেকে ও প্রান্তে ছুটে বেড়াল কেন্দ্রীয় দল

দুই জায়গাতেই ঘন্টাখানেক ধরে আলোচনা ও বৈঠক করেন তাঁরা।

  • Share this:
 

#‌কলকাতা:‌ প্রথম দিন সংঘাত, দ্বিতীয় দিন ঘরবন্দির পর পরের দিন অর্থাৎ বৃহস্পতিবার অবশেষে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে বেরোল। রাজ্য স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তাকে সঙ্গে নিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে বিএসএফের ইস্টার্ন কমান্ডের অফিস থেকে বেরিয়ে প্রথমে রাজারহাটের কোয়ারেন্টাইন সেন্টার পরিদর্শনে যায় কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। সেখান থেকে বেরিয়ে রাজ্যের কোভিড হাসপাতাল হিসেবে চিহ্নিত এম আর বাঙুর হাসপাতালে যায় কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। দুই জায়গাতেই ঘন্টাখানেক ধরে আলোচনা ও বৈঠক করেন তাঁরা।

রাজারহাট কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে গিয়ে আইসোলেশন ওয়ার্ড ঘুরে দেখেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। বিশেষত কিভাবে চিকিৎসা চলছে, চিকিৎসক ও নার্সরা কিভাবে কাজ করছেন সেই বিষয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য নেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদলের সদস্যরা। তারপর এম আর বাঙ্গুর হাসপাতালেও স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তাকে সঙ্গে নিয়ে যায় কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। সেখানেও প্রায় ঘণ্টাখানেক চিকিৎসক, নার্স ও করোনা আক্রান্ত রোগীদের সঙ্গে কথা বলেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। প্রোটোকল মেনেই পিপিই কিট পরে পরিদর্শন করেন কেন্দ্রীয়় প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। অন্যদিকে বৃহস্পতিবার মুখ্য সচিব জানিয়ে দিয়েছেন, কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদলকে আর নতুন করে কোন তথ্য দেওয়া হবে না।

রাজ্যে সোমবার এসেছে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। সোমবারের পর থেকেই কেন্দ্রীয় দল আসা নিয়ে রাজ্য কেন্দ্র তুমুল সংঘাত শুরু হয়। যদিও মুখ্য সচিব পরবর্তীকালে জানিয়ে দেন রাজ্য সরকার কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলকে সবরকম ভাবে সহযোগিতা করবে। তবে সাময়িকভাবে জট কাটলেও বুধবার দিনভর ঘর বন্দি করে থাকেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। কিন্তু বৃহস্পতিবার অবশেষে দুটি জায়গায় পরিদর্শন করে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল।

তবে সংঘাত কাটিয়ে বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল হাসপাতাল পরিদর্শনে গেলেও সংঘাত যে এখনও অব্যাহত বৃহস্পতিবার তা মুখ্যসচিবের কথাতেই স্পষ্ট হল। এদিন নবান্ন থেকে মুখ্যসচিব জানান, ‘‌লকডাউনের মধ্যে সফর এটা কি আইন ভঙ্গ নয়? কোন তথ্য দরকার হলে বিএসএফ ক্যাম্পে বসেই ই মেইল পেতে পারেন। রাজ্যের সঙ্গে আলোচনা না করে টিম পাঠানো মানতে পারছি না। স্বাস্থ্য অধিকর্তা করোনা মোকাবিলা না করে ৬ ঘন্টা ধরে বৈঠক করবেন?’‌ সব মিলিয়ে করোনা যুদ্ধে কেন্দ্র-রাজ্য চাপানউতোর তুঙ্গে।

সোমরাজ বন্দোপাধ্যায়

 
Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: April 23, 2020, 10:00 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर