বাস টিকিটেও কালোবাজারি! ঝোপ বুঝে কোপ মারছে কন্ডাক্টররা

বাস টিকিটেও কালোবাজারি! ঝোপ বুঝে কোপ মারছে কন্ডাক্টররা
বাস টিকিটে কালোবাজারি

হাওড়া থেকে মেচেদা,নিমতৌড়ি ভাড়া যেখানে ৬০/ ৭০ টাকার মধ্যে। আজ সেখানে ২০০ টাকা বা তারও বেশি টাকা দিয়ে বাস টিকিট কিনে ফিরতে হচ্ছে বাসে। যদিও টিকিট না দিয়েই বাড়তি ভাড়া নেওয়ার অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী যাত্রীরা।

  • Share this:

#তমলুক: করোনার কারণে লকডাউন৷ আর তার জেরেই বাস ভাড়ায় দেদার  কালোবাজারি চলছে বলে অভিযোগ উঠছে। রাস্তায় পর্যাপ্ত গাড়ি নেই, কিন্তু বাড়ি ফেরার তাড়া রয়েছে হাজার হাজার বাসযাত্রীর। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে বাসের টিকিটের দাম বাড়ানোর অভিযোগ করছেন করোনা আতঙ্কে বাড়ি ফেরত বাসযাত্রীরা।

করোনা আতঙ্কে আজ অর্থাত্‍ মঙ্গলবার  বিভিন্ন এলাকা থেকে বাড়ি ফেরার তোড়জোড় অব্যাহত।  ভিন রাজ্য থেকে কলকাতা হয়ে কিংবা কলকাতা সহ অন্যান্য জায়গা থেকে বাসে চেপে বাড়ি ফিরতে গিয়ে রীতিমতো নাকাল হতে হচ্ছে মানুষজনদের।

বাদুড় ঝোলা হয়ে বাড়ি ফিরতে গিয়ে বাস ভাড়া হিসেবে টাকা বাড়তি গচ্চা দিতে হচ্ছে। লকডাউনের কারণে সকাল থেকেই বাস ধরে গন্তব্যে যাচ্ছিলেন যাত্রীরা। সে  হাওড়া কিংবা ধর্মতলা থেকে মেছেদা, কোলাঘাট, তমলুক সহ বাসে চেপে যাঁরাই ফিরছেন, সবাইকেই চড়া দাম দিয়েই ফিরতে হচ্ছে বলে অভিযোগ।

হাওড়া থেকে মেচেদা,নিমতৌড়ি ভাড়া যেখানে ৬০/ ৭০ টাকার মধ্যে। আজ সেখানে ২০০ টাকা বা তারও বেশি টাকা দিয়ে বাস টিকিট কিনে ফিরতে হচ্ছে বাসে। যদিও টিকিট না দিয়েই বাড়তি ভাড়া নেওয়ার অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী যাত্রীরা।

আজ কলকাতা থেকে কাঁথি আসার জন্য বেসরকারি বাসের ভাড়া নেওয়া হচ্ছে ৪০০ টাকা। দেওয়া হচ্ছে না টিকিটও।এমনই অভিযোগ এক বাসযাত্রীর। তার ওপর বাসে ঝুলে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ফিরতে হচ্ছে। বিকেল থেকে কোলাঘাট সহ তমলুক কাঁথি, হলদিয়া লকডডাউন করা হয়েছে। তাই তার আগে বাড়ি ফেরার আপ্রাণ প্রয়াস দেখা গেল কোলাঘাট সহ মেছেদায় জাতীয় সড়ক এলাকায়। শুধু কলকাতা কিংবা হাওড়া থেকে ফেরার জন্য এই উচ্চহারে ভাড়া দেওয়া নয়। পূর্ব-পশ্চিম এবং ঝাড়্গ্রাম, তিন মেদিনীপুরের রাস্তায় এই ছবি ধরা পড়েছে। যা নিয়ে ক্ষোভ জানিয়েছেন প্রতারিত বাস যাত্রীরা। বিপদে পড়া মানুষজন পুলিশ প্রশাসনের সক্রিয়তা দাবি করেছেন।

SUJIT BHOWMIK

First published: March 24, 2020, 2:24 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर