করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউনের কলকাতায় রক্তদান শিবির! সংঘপ্রধানের বার্তা পেয়েই পথে সেবকরা

লকডাউনের কলকাতায় রক্তদান শিবির! সংঘপ্রধানের বার্তা পেয়েই পথে সেবকরা
বাগবাজারে আয়োজিত হল রক্তদান শিবির।

রবিবার বিকেলেই রক্তদান শিবির হলো উত্তর কলকাতার বাগবাজারে। লাইফ কেয়ারের প্রযুক্তি সহযোগিতায় রক্তদান করলেন ৩০ জনেরও বেশি।

  • Share this:

করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে তাই টানা  লকডাউনে দেশ। এমন পরিস্থিতিতে কলকাতায় রক্তদান শিবির আয়োজিত হল। আয়োজক রাষ্ট্রীয় স্বেচ্ছাসেবক সংঘ।

করোনা যুঝতে রবিবারই বার্তা দিয়েছেন রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সঙ্ঘ প্রধান মোহন ভাগবত। সেই বার্তায় মোহন ভাগবত বলেন, '১৩০ কোটি দেশবাসী ভারত মাতার সন্তান। জাতি, ধর্ম,  বর্ণ কে দূরে সরিয়ে রেখে  সমাজের পাশে দাঁড়াতে হবে।" কার্যত এই বার্তাকে সামনে রেখে রবিবার বিকেলেই রক্তদান শিবির হলো উত্তর কলকাতার বাগবাজারে। লাইফ কেয়ারের প্রযুক্তি সহযোগিতায় রক্তদান করলেন ৩০ জনেরও বেশি।

কিন্তু সামাজিক দূরত্ব মেনে রক্তদান করা সম্ভব?  প্রশ্নের উত্তরে উদ্যোক্তা শৈলেশ বাগারিয়া দাবি করেন, "পুলিশের অনুমতি নিয়ে রক্তদান শিবির করেছি। লকডাউনের সামাজিক দূরত্বের কথা মাথায় রেখে ৩০-৩৫ জনের রক্তদানের ব্যবস্থা করেছি। আজ আরএসএস প্রধান পরম পূজনীয় মোহন ভাগবত সমাজের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন। সেই বার্তাকে পুঁজি করে আমাদের শিবিরের আয়োজন।"

রক্তদাতাদের প্রথমেই হ্যান্ড সানিটাইজার দিয়ে জীবাণু মুক্ত করার কাজ হচ্ছে। মাস্ক পড়িয়ে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে রক্তদাতাদের।রক্ত দিতে দিতে অঞ্জনা পাল জানালেন, "রক্ত দেওয়া সামাজিক কর্তব্য মনে করি। গরমকালে রক্তের অকালের সময় এগিয়ে না এলে থ্যালাসেমিয়ার বাচ্ছা গুলো বাঁচবে কিভাবে।"করোনায় সংক্রমণের ভয় তীব্র। কোনও একজনের শরীরে করোনা থেকে থাকলে তা রক্তদানের মতো এই জনসমাগমের জায়গা থেকেদ্রুত ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা। রক্তদাতারা কেউ করোনা সংক্রমণে আক্রান্ত নয় বুঝছেন কী ভাবে? উদ্যোক্তা ব্রজেশ ঝা জানালেন, "সাম্প্রতিক কোনও জ্বরের ইতিহাস না থাকলে তবেই রক্তদাতার তালিকায় নাম তোলা হচ্ছে। চিকিৎসকরাও আর এক দফা রক্তদাতাদের পরীক্ষা করে সবুজ সঙ্কেত দিলেই রক্তদানের জন্য টেবিলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।" করোনা মোকাবিলায় সুর চড়িয়ে বিজেপি নেতারা বাড়িতে থেকেই রাজ্যের  বিরুদ্ধে  আন্দোলনের তাল ঠুকছেন। হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন শাসক গোষ্ঠীকে। আর একই সময় সরাসরি রাস্তায় নেমে রক্তদান শিবির করে সামাজিক বার্তা দেওয়ার চেষ্টায় আরএসএস।"

Published by: Arka Deb
First published: April 27, 2020, 12:15 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर