Dilip Ghosh on Coronavirus : 'শক্তিশালী' দিলীপের করোনা টোটকা, খেতে হবে গরম জল আর পাচন!

দিলীপের করোনা 'দাওয়াই'

এলাকার মানুষকে করোনা সচেতনতা নিয়ে এদিন রীতিমতো পাঠ পড়ালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। আরও একধাপ এগিয়ে বলে দিলেন পাঁচন এর ফর্মুলাও।

  • Share this:

    #মালদহ : প্রথম ছয় দফা নির্বাচন পেরোতেই যেন একটু অন্য মেজাজে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ষষ্ঠ দফা শেষেই বৃহস্পতিবার রাতে একটি ট্যুইটার পোস্টে 'খেলা শেষ' লিখে একটি স্কোরবোর্ডের ছবি শেয়ার করে চমক দেন দিলীপ। কল্পিত স্কোরবোর্ডে দেখা যায় বিজেপি জয়ী আর তৃণমূল পরাজিত। এরপরেই এই নিয়ে তুমুল চর্চা শুরু হয়ে যায় রাজ্য রাজনীতিতে। ফের শুক্রবার ময়দানি নেতাকে পাওয়া গেল অন্য মুডে। এদিন পুরাতন মালদহের কালীতলা বাজারে ছিলেন তিনি। কিন্তু তৃণমূলের বিরুদ্ধে আক্রমণ, কটাক্ষ ইত্যাদি ছেড়ে এলাকার বাসিন্দাদের করোনা সম্পর্কে সচেতন করতে দেখা গেল রাজ্য বিজেপির শীর্ষ নেতাকে।

    এলাকার মানুষকে করোনা সচেতনতা নিয়ে এদিন রীতিমতো পাঠ পড়ালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। আরও একধাপ এগিয়ে বলে দিলেন পাঁচন এর ফর্মুলাও। আর করোনা ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে বিশেষ 'পাচঁন' তৈরি করে খাওয়ার পরামর্শও দেন তিনি। দিলীপ বলেন, "সকালে উঠে কাঁচা আদা, কাঁচা হলুদ, তুলসী পাতা খেয়ে নিন। কাপড় দিয়ে মাস্ক বানিয়ে নিন। পুরানো কাপড়, নতুন কাপড়। বাচ্চারা অবশ্যই বাইরে বেরলে মাস্ক পরবে।" যদিও তাৎপর্যপূর্ণভাবে দিলীপ ঘোষের মুখে এদিন কোনও মাস্ক দেখা যায়নি। তবে রাজনৈতিক আলোচনার পাশাপাশি সংকটের দিনে দিলীপ ঘোষের মুখে সচেনতনতার বার্তাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন বাসিন্দাদের একাংশ।

    বিভিন্ন ইস্যুতে বার বার মেজাজ হারানো নেতা এদিন ঠাণ্ডা মাথায় স্থানীয় বাসিন্দাদের বার বার করোনা সম্পর্কে নানাভাবে সতর্ক করেন। তাঁর কথায়, "শরীরের ভেতরটা গরম। তাই গরম গরম খেলে তাড়াতাড়ি হজম হয়। আপনি যদি ঠান্ডা খান তবে শরীরের তাপ চলে যায়। শক্তি চলে যায়। তাই এই সময় গরম জলটা খেলে ভাল হয়। যতটা তেষ্টা পাবে জল খান।"

    এখানেই শেষ নয়। করোনা প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এদিন আরও বলেন, "যার শরীর দুর্বল তাঁকে করোনা আক্রমণ করবে। আমাকে 'অ্যাটাক' করতে পারছে না, কারণ আমার গায়ে শক্তি আছে। করোনাকে মেরে দিচ্ছি।'

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: