"টিকা চাইছি, কিন্তু দেওয়া হচ্ছে না!" নির্বাচনী মঞ্চে তোপ মমতার, পরিসংখ্যান কী বলছে ?

'দাঙ্গাবাজ বিজেপি' দেশে 'কুশাসনের রাজত্ব' চালাচ্ছে বলে তাঁর ভাষণে মোদি সরকারকে এদিন কার্যত তুলোধোনা করেন মমতা।

'দাঙ্গাবাজ বিজেপি' দেশে 'কুশাসনের রাজত্ব' চালাচ্ছে বলে তাঁর ভাষণে মোদি সরকারকে এদিন কার্যত তুলোধোনা করেন মমতা।

  • Share this:

    #কলকাতা : নির্বাচনী পারদ তুঙ্গে। রোড শো, থেকে র‌্যালি, ঘাসফুল ও পদ্মফুলের টক্করে ক্রমশ বাড়ছে রাজ্যের তাপমাত্রা। হুইলচেয়ারে বসেই একের পর এক নির্বাচনী সভায় জ্বালাময়ী ভাষণ দিচ্ছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। অন্যদিকে, বসে নেই গেরুয়া শিবিরও। দিল্লি থেকে ঘন ঘন উড়ে আসছেন মোদি-শাহ-নাড্ডারা। স্বভাবতই জারি রয়েছে অভিযোগ ও পাল্টা অভিযোগের পালা। শান দেওয়া তির ছুটে আসছে প্রতিপক্ষের দিকে। এহেন অবস্থায় ঝাড়গ্রামের নির্বাচনী মঞ্চ থেকে বুধবার টিকা নিয়ে কেন্দ্রের মোদি সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

    'দাঙ্গাবাজ বিজেপি' দেশে 'কুশাসনের রাজত্ব' চালাচ্ছে বলে তাঁর ভাষণে মোদি সরকারকে এদিন কার্যত তুলোধোনা করেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রী তাঁর নির্বাচনী সভায় আক্ষেপের সুরে বলেন, করোনা মোকাবিলাতেও কার্যত ব্যর্থ নরেন্দ্র মোদির সরকার। তাঁর অভিযোগ, বার বার টিকা চেয়ে কেন্দ্রের কাছে আবেদন করা সত্বেও করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন পাচ্ছে না রাজ্য।

    কিন্তু সত্যিই কি তাই ? তবে কি রাজ্যে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে চলেছে করোনা টিকাকরণ প্রক্রিয়া? এক নজরে দেখে নেওয়া যাক পরিসংখ্যান ঠিক কী বলছে? দেখা যাচ্ছে, ১৭ মার্চ বুধবার সকাল আটটা পর্যন্ত রাজ্যের কাছে এসে পৌঁছেছে ৫২.৯০ লাখ ভ্যাকসিন। যার মধ্যে ব্যবহার করা হয়েছে ৩০.৮৯ লক্ষ। ফলত, আজকের দিনে দাঁড়িয়ে রাজ্যের কাছে এখনও মজুত রয়েছে ২২.০১ লাখ করোনা টিকা।

    এদিকে, ক্রমশ করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় স্রোতের (সেকেন্ড ওয়েভ) আশঙ্কা বাড়তে থাকায় বুধবারই দেশের সব মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বৈঠকে কড়া হাতে করোনা রোখার আর্জি জানিয়েছেন তিনি। 'দাওয়াই ভি, কড়াই ভি' স্লোগানে জোর দিয়ে মোদি এদিন জানান, রাজ্যগুলিকে করোনা পরীক্ষার সংখ্যা অর্থাৎ আরটি-পিসিআর বাড়াতে হবে। সরকারি এবং বেসরকারি হাসপাতালে যত বেশি সংখ্যক মানুষকে টিকা প্রদান করতে হবে। টিকার অপচয় একেবারে কমিয়ে আনতে হবে। যদিও সেই বৈঠকে যোগ দেননি বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্য সরকারের এক শীর্ষকর্তা জানিয়েছেন, নির্বাচনী প্রচারে ব্যস্ত থাকায় তিনি বৈঠকে যোগ দিতে পারেননি। সূত্রের খবর বৈঠকে উপস্থিত থেকে আরও বেশি পরিমাণে করোনাভাইরাস টিকা দেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: