corona virus btn
corona virus btn
Loading

এক ফুড ডেলিভারি বয়ের জন্যই সম্ভবত করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রমাদ গুনছে বেজিং

এক ফুড ডেলিভারি বয়ের জন্যই সম্ভবত করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রমাদ গুনছে বেজিং
Representative Image

চিনের জনপ্রিয় ফুড ডেলিভারি প্ল্যাটফর্ম ele.me-এর ডেলিভারি বয়ের করোনা ধরা পড়ে৷ তারপরেই বেজিংয়ে একের পর এক আক্রান্তের খোঁজ মিলছে৷

  • Share this:

#বেজিং: মাস খানেক স্বস্তি দিয়ে করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রমাদ গুনছে চিন৷ চিনের ন্যাশনাল হেল্থ কমিশনের রিপোর্ট বলছে, মঙ্গলবারই আরও ২৯ জনের শরীরে নতুন করে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে৷ এর মধ্যে রাজধানী বেজিংয়ে ১৩ জন রয়েছেন৷ ২৪৯ জন এই মুহূর্তে করোনা আক্রান্তের চিকিত্‍সা চলছে৷ এই দ্বিতীয় ঢেউয়ের পিছনে সম্ভবত দায়ী একজন ফুড ডেলিভারি বয়৷ বেজিংয়ের জনপ্রিয় ফুড প্ল্যাটফর্মের ওই ডেলিভারি বয় থেকেই সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে বলে মনে করছে প্রশাসন৷

সোমবার পর্যন্ত ৯৯ জন করোনা আক্রান্তের খোঁজ মেলে৷ যাঁদের অবশ্য কোনও উপসর্গ নেই৷ তবুও তাঁদের চিকিত্‍সা পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে৷ কয়েক দিন আগেই চিনের ন্যাশনাল হেল্থ কমিশন জানিয়েছিল, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে৷ ঠিক তার পরেই চিনের জনপ্রিয় ফুড ডেলিভারি প্ল্যাটফর্ম ele.me-এর ডেলিভারি বয়ের করোনা ধরা পড়ে৷ তারপরেই বেজিংয়ে একের পর এক আক্রান্তের খোঁজ মিলছে৷

Representative Image Representative Image

চিনা সংবাদপত্র গ্লোবাল টাইমস-এর খবর অনুযায়ী, বেজিং প্রশাসনের অনুমান, ৪৭ বছর বয়সি ওই ডেলিভারি বয় ১ জুন থেকে ১৭ জুনের মধ্যে বেজিংয়ের বিস্তীর্ণ এলাকায় খাবার ডেলিভারি করেন৷ ফুড ডেলিভারি বয় থেকে করোনা সংক্রমণ বেজিংয়ে এই প্রথম৷ ওই করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি গড়ে প্রতিদিন ৫০টি অর্ডার ডেলিভারি করেছেন গত কয়েক সপ্তাহে৷ যে সব বাড়িতে ওই ডেলিভারি বয় খাবার ডেলিভারি করেছেন, সেই সব পরিবারগুলিকে চিহ্নিত করে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হচ্ছে৷

এই ঘটনার পরেই ওই সংস্থা তাদের সব কর্মীর করোনা টেস্ট করানো শুরু করেছে৷ যদিও করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এখনও নিয়ন্ত্রণে আছে বলেই দাবি মিউনিসিপ্যাল গভর্নমেন্টের মুখপাত্র শু হেজিয়াংয়ের৷

Published by: Arindam Gupta
First published: June 24, 2020, 7:34 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर