Home /News /coronavirus-latest-news /

করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় বিপত্তারিণী পুজোয় বন্ধ থাকল সর্বমঙ্গলা মন্দির

করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় বিপত্তারিণী পুজোয় বন্ধ থাকল সর্বমঙ্গলা মন্দির

বিপত্তারিণী পুজো উপলক্ষে অগণিত ভক্তের ভিড় হবে আঁচ করেই মন্দির বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কর্তৃপক্ষ ।

  • Share this:

#বর্ধমান: বিপত্তারিণী পুজোর ভিড় ঠেকাতে শনিবার বন্ধ রাখা হল বর্ধমানের সর্বমঙ্গলা মন্দির । আনলক ওয়ানের হাত ধরে ভক্তদের জন্য কয়েকদিন আগেই এই মন্দিরের দরজা খুলে দেওয়া হয়েছিল । কিন্তু শনিবার বিপত্তারিণী পুজো উপলক্ষে অগণিত ভক্তের ভিড় হবে আঁচ করেই মন্দির বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কর্তৃপক্ষ । এদিন যে মন্দির বন্ধ থাকবে তা আগাম ঘোষণাও করা হয়েছিল । আগামী মঙ্গলবারও বিপত্তারিণী পুজো রয়েছে । সেদিনও আজকের মতই মন্দিরের দরজা ভক্তদের জন্য বন্ধ রাখা হবে বলে জানিয়েছে সর্বমঙ্গলা মন্দির ট্রাস্টি বোর্ড ।  তবে রবি ও সোমবার মন্দির খোলা থাকবে । ভক্তরা মাতৃ মূর্তি দর্শনের পাশাপাশি অন্যান্য দিনের মতো পুজো দিতে পারবেন ।

বর্ধমানের অধিষ্ঠাত্রী দেবী সর্বমঙ্গলার মন্দিরে বিপত্তারিণী পুজো উপলক্ষে অগণিত ভক্তের ভিড় হয় প্রতি বছরই । সকাল থেকে দীর্ঘ লাইনে পুজোর ডালি নিয়ে অপেক্ষায় থাকেন মহিলারা । পরিবারের সকলের মঙ্গল কামনায় পুজো দেন। সেই ভিড় রুখতেই বিপত্তারিণী পুজোর দু দিন মন্দির বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ । সর্বমঙ্গলা ট্রাস্টি বোর্ডের সম্পাদক সঞ্জয় ঘোষ বলেন, এখন এই করোনা আবহে ভক্তদের সুস্থতা বজায় রাখার জন্যই আমরা মন্দিরে ভিড় হতে দিচ্ছি না । বিপত্তারিণী পুজোর ভিড়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব নয় । দূর-দূরান্ত থেকে লক্ষাধিক ভক্ত আসেন মন্দিরে । তাই সেই ভিড়ে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। সেজন্যই এদিন সকাল থেকেই মন্দিরের প্রবেশদ্বার গুলি বন্ধ রাখা হয় ।

মন্দির বন্ধ থাকায়  বহু ভক্ত মন্দিরের গেট, দেওয়ালের পাশে ফুল ধূপকাঠি মায়ের উদ্দেশ্যে অর্পণ করে গিয়েছেন । ট্রাস্টি বোর্ডের সম্পাদক বলেন, ভক্তদের আবেগের কথা আমরা বুঝি । কিন্তু এই করোনা পরিস্থিতিতে  মন্দির বন্ধ রাখা ছাড়া অন্য কোন উপায় ছিল না । এদিন বাইরে থেকে আসা অনেক পুরোহিতকে মন্দির চত্বরের বাইরে মা সর্বমঙ্গলা ছবি রেখে বিপত্তারিণী পুজো করতে দেখা গিয়েছে । সেই সব পুরোহিতের কাছে পুজো করিয়েছেন অনেক ভক্তই । মঙ্গলবার বিপত্তারিণী পুজো রয়েছে । তাই সেদিনও মন্দির বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে । তবে মন্দিরের ভেতরে মায়ের পুজো যথারীতি চলবে । আপামর ভক্তের মঙ্গল কামনায় সেখানে বিপত্তারিণী পুজো করবেন পুরোহিতরা । তবে সেদিনও মন্দিরে ঢুকে পুজো দেওয়া থেকে বঞ্চিত থাকতে হবে ভক্তদের ।

Saradindu Ghosh

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Coronavirus, East Bardhaman

পরবর্তী খবর