corona virus btn
corona virus btn
Loading

হতভাগ্য শ্রমিক! ভিনরাজ্য থেকে ফিরতে গিয়ে পথে মৃত্যু অন্তত ৪২ জনের

হতভাগ্য শ্রমিক! ভিনরাজ্য থেকে ফিরতে গিয়ে পথে মৃত্যু অন্তত ৪২ জনের
এই হাঁটা শেষ হয়নি বহু পরিযায়ী শ্রমিকেরই।

সম্প্রতি সেভলাইফ সংস্থার তরফে একটি সমীক্ষার রিপোর্ট পেশ করা হয়েছে। সেই রিপোর্টেই দেখা যাচ্ছে প্রথম দু'দফার লকডাউনে অন্তত ৬০০ পথ দুর্ঘটনা ঘটেছে। মারা গিয়েছেন কমপক্ষে ১৪০ জন।

  • Share this:

সঞ্চয়টুকু ফুরিয়েছে। কেউ দু'বেলা ভাত তুলে দেবে এমন নিশ্চয়তাও নেই। উপায়ন্তর না দেখে হাটতে শুরু করেছিলেন বহু পরিযায়ী শ্রমিক। সংবাদ শিরোনাম হয়েছ পথেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ার দু'একটি ঘটনা। তথ্য বলছে, লকডাউনে পথদুর্ঘটনাতেই মৃত্যু হয়েছে ৪২ জন শ্রমিকের।

সম্প্রতি 'সেভলাইফ' সংস্থার তরফে একটি সমীক্ষার রিপোর্ট পেশ করা হয়েছে। সেই রিপোর্টেই দেখা যাচ্ছে প্রথম দু'দফার লকডাউনে অন্তত ৬০০ পথ দুর্ঘটনা ঘটেছে। মারা গিয়েছেন কমপক্ষে ১৪০ জন। এদের এক তৃতীয়াংশই পরিযায়ী শ্রমিক। সংখ্যার হিসেবে বললে, পরিযায়ী শ্রমিকের সংখ্যা ৪২। মৃত্যু হয়েছে আরও ১৭ জন জরুরি পরিষেবা প্রদাণকারীরও।

সেভলাইফের কর্ণধার পীযুষ তিওয়ারির কথায়,"আমাদের এই সংখ্যাটাকে ন্যূনতম ধরে নিতে হবে। অর্থাৎ মৃত্যু এর থেকে বেশিও হতে পারে। তবে নথিঙুক্ত করা গিয়েছে এইটুকুই। আমরা বহু রাজ্য থেকে তথ্যই পাইনি। ফলে সেই জায়গাটা শূন্যই রাখতে হয়েছে তালিকা বানানোর সময়।"

পীযুষ তিওয়ারির বক্তব্য, প্রতি বছর হাজার হাজার মানুষের মৃত্যু হয় পথ দুর্ঘটনা ফলে। প্রশাসনের কাছে তার আবেদন, লকডাউনের সময়টাকে রাস্তা মেরামতে র কাজে লাগালে, গোটা বছরে দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যু এড়ানো যেত।

First published: May 7, 2020, 5:21 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर