corona virus btn
corona virus btn
Loading

পুষ্প বৃষ্টি, করতালি আর শঙ্খ ধ্বনিতে বরণ! বাড়ি ফিরলেন করোনাজয়ী অশোক ভট্টাচার্য

পুষ্প বৃষ্টি, করতালি আর শঙ্খ ধ্বনিতে বরণ! বাড়ি ফিরলেন করোনাজয়ী অশোক ভট্টাচার্য

গাড়ি দাঁড়াতে না দাঁড়াতেই পুষ্পবৃষ্টি শুরু হয়ে যায়। দরজায় তখন তাঁর স্ত্রী প্রদীপ হাতে নিয়ে দাঁড়িয়ে। শঙ্খ ধ্বনি আর প্রদীপের শিখা মাথায় ছুঁইয়ে বরণ করে নেওয়া হয় তাঁকে।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: অপেক্ষার প্রহর গুনছিলেন শহরবাসী! অবশেষে ফিরলেন! করোনা যুদ্ধ জয় করে বাড়ি ফিরলেন শিলিগুড়ি পুরসভার প্রশাসক মণ্ডলীর চেয়ারম্যান অশোক ভট্টাচার্য। দুপুরেই উত্তরায়ণের বেসরকারী হাসপাতাল থেকে তাঁকে ছুটি দেওয়া হয়।

হাসপাতালেই করোনাজয়ী অশোক ভট্টাচার্যের  হাতে পুষ্পস্তবক তুলে দেওয়া হয়। তিনি নিজেই আবার হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্সদের সংবর্ধিত করেন। তাঁদের হাতে তুলে দেন পুষ্পস্তবক। সেখান থেকে সোজা দলীয় কার্যালয়ে। অপেক্ষায় ছিলেন দলীয় কর্মী, সমর্থকেরা। নামেননি গাড়ি থেকে। পুষ্প বৃষ্টিতে জননেতাকে বরণ করে নেওয়া হয়। ছিল স্লোগানও। তারপর বাড়ি। বাড়ির চারপাশে অনুগামীরা ভিড় জমিয়েছিলেন ৷ আশপাশের আবাসনের ব্যালকনি থেকেও পড়শিরা করতালির মধ্য দিয়ে অভিবাদন জানান। গাড়ি দাঁড়াতে না দাঁড়াতেই পুষ্পবৃষ্টি শুরু হয়ে যায়। দরজায় তখন তাঁর স্ত্রী প্রদীপ হাতে নিয়ে দাঁড়িয়ে। শঙ্খ ধ্বনি আর প্রদীপের শিখা মাথায় ছুঁইয়ে বরণ করে নেওয়া হয় তাঁকে।

করোনা সংক্রমণ তো ছিল। আরও নানা রোগে আক্রান্ত তিনি। নিয়মিত ইনসুলিন নেন। অক্সিজেন নেওয়ার ক্ষেত্রেও সমস্যা হয়েছিল। এই বয়সে দাঁড়িয়েও মারণ করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জয়! বাড়ির সিঁড়িতে দাঁড়িয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া, করোনা মানেই মৃত্যু নয়। সতর্কতা এবং সাবধানতা মেনে চলতে হবে। আর মনের জোর রাখতে হবে। তাহলেই করোনার বিরুদ্ধে জেতা যাবে।

অশোক ভট্টাচার্য জানান, ‘শিলিগুড়ির চিকিৎসা ব্যবস্থা খুবই উন্নত। চিকিৎসক, নার্সদের পরিষেবায় আমি অভিভূত।’ আপাতত ১৫ দিন বিশ্রাম নেবেন। তারপর ফিরবেন পুরসভায়৷ তাঁর সুস্থ হওয়ায় খুশি রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব। প্রথম দিন থেকেই পাশে থেকেছেন। দল এবং পরিবারের লোকেদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখে চলেছিলেন। গতকালও ফোনে কথা হয় তাঁদের। এটাই শিলিগুড়ির রাজনৈতিক সৌজন্যতা! মুখ্যমন্ত্রী থেকে নবান্নের অন্য মন্ত্রীরাও নিয়মিত তাঁর স্বাস্থ্যের খোঁজ খবর নিয়েছেন। মন্ত্রীর পরামর্শ, আপাতত চিকিৎসকদের গাইড লাইন মেনে বিশ্রাম নিক উনি। তারপর লেখালিখি করার করবেন। খুশী দলীয় নেতা, কর্মী থেকে সমর্থকেরা। তাদের কথায় অশোকবাবুর সুস্থ হয়ে ফিরে আসা করোনার বিরুদ্ধে বাড়তি অক্সিজেন শহরবাসীর কাছে।

Partha Pratim Sarkar

Published by: Elina Datta
First published: July 6, 2020, 5:17 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर