করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ডায়াবেটিস থাকলে কি করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়? জেনে নিন চিকিৎসকরা কী জানাচ্ছেন

ডায়াবেটিস থাকলে কি করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়? জেনে নিন চিকিৎসকরা কী জানাচ্ছেন
Representational Image

ডায়াবেটিস নিয়ে গণমানসে যে ভ্রান্ত ধারণাগুলো প্রচলিত আছে, তা নিয়ে সম্প্রতি সরব হলেন CK Birla Hospitals- CMRI-এর চিকিৎসক কল্যাণ গঙ্গোপাধ্যায় ৷

  • Share this:

#কলকাতা: কোভিড ১৯ ভাইরাসের সংক্রমণের প্রভাবে সুস্থ হয়ে যাওয়ার পরেও অনেক রোগী অনেক রকমের সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। বিশেষ করে শরীরের পেশিতে ব্যথা, ডিপ ভেইন থ্রম্বোসিসের মতো নানা সমস্যায় আক্রান্ত হচ্ছেন তাঁরা সুস্থ হওয়ার মাসখানেকের মধ্যে। কোভিডোত্তর এই সমস্যার মোকাবিলায় শহরের অনেক হাসপাতালেই বিশেষ চিকিৎসাবিভাগ চালু করা হয়েছে। সেই জায়গা থেকে তো বটেই, তবে বিশেষ করে ডায়াবেটিস নিয়ে গণমানসে যে ভ্রান্ত ধারণাগুলো প্রচলিত আছে, তা নিয়ে সম্প্রতি সরব হলেন CK Birla HospitalsCMRI-এর  চিকিৎসক কল্যাণ গঙ্গোপাধ্যায় (Endocrinologist consultant of CMRI )। দেখে নেওয়া যাক এক এক করে কী বলেছেন তিনি সাম্প্রতিক এক সাংবাদিক বৈঠকে!

১. বেশি মিষ্টি খেলেই ডায়াবেটিস হয় না

ডায়াবেটিস নিয়ে অনেকের মধ্যেই এই ভ্রান্ত ধারণাটি প্রচলিত আছে। অনেকেই মনে করেন যে রোজ মাত্রাতিরিক্ত মিষ্টি খাওয়াটা ডায়াবেটিসের দিকে নিয়ে যেতে পারে কোনও ব্যক্তিকে। কিন্তু ডাঃ গঙ্গোপাধ্যায় সাফ জানাচ্ছেন যে এই ধারণার কোনও যুক্তিসঙ্গত ভিত্তি নেই। কেন, তা বিশ্লেষণ করতে গিয়ে তিনি এই অসুখের ধরনটি একটু ব্যাখ্যা করেছেন।

ডাঃ গঙ্গোপাধ্যায় বলছেন যে ডায়াবেটিস হল রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে না থাকার অসুখ। আমরা যখন মিষ্টি খাই, তখন তা শরীরে যাওয়ার পরে ভেঙে গিয়ে শর্করা বা গ্লুকোজে পরিণত হয় ঠিকই। কিন্তু অতিরিক্ত মিষ্টি খাওয়া থেকে ডায়াবেটিস হয় না। কেন না, এই গ্লুকোজকে রক্ত থেকে শরীরের কোষে পাঠিয়ে দেয় ইনসুলিন। এর পর তা শক্তিতে রূপান্তরিত হয়। কিন্তু আমাদের শরীর যখন পর্যাপ্ত পরিমাণে ইনসুলিন উৎপন্ন করতে পারে না, তখনই সমস্যা দেখা দেয়। তখন রক্তে গ্লুকোজ, যাকে ব্লাড সুগারও বলা হয়ে থাকে, তার মাত্রা যায় বেড়ে। এই পর্যায়ে যখন কোনও ব্যক্তি পৌঁছে যান, তখনই অসুখটাকে বলা হয় ডায়াবেটিস।

পাশাপাশি, ডাঃ কল্যাণকুমার গঙ্গোপাধ্যায় এটাও উল্লেখ করতে ভোলেননি যে অতিরিক্ত মিষ্টি খাওয়ার অভ্যাস থেকে ডায়াবেটিস না হলেও শরীরে মেদ জমবে। যা পরবর্তী কালে নানা সমস্যার জন্ম দিতে পারে।

২. ইনসুলিন ইঞ্জেকশন নিয়ে যেতে হয় আজীবন

ইনসুলিন ইঞ্জেকশন নিয়ে প্রচলিত এই মতটিরও বিরোধিতা করেছেন ডাঃ গঙ্গোপাধ্যায়। এ প্রসঙ্গে আলোকপাত করে তিনি জানিয়েছেন যে একমাত্র যখন ডায়াবেটিসের সমস্যা ক্রনিক বা দীর্ঘ দিনের হয়, তখনই ইনসুলিন ইঞ্জেকশন নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়ে থাকে।

৩. ডায়াবেটিস আর কোভিড ১৯-এর সম্পর্ক

সাফ জানিয়েছেন ডাঃ গঙ্গোপাধ্যায়- ডায়াবেটিস থাকলে কারও কোভিড ১৯-এ আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায় না। তবে ডায়াবেটিস আছে এমন ব্যক্তি যদি সংক্রামিত হয়ে পড়েন, সে ক্ষেত্রে ভবিষ্যতে নানা জটিল শারীরিক অসুবিধা দেখা দিতে পারে। দুর্ভাগ্যজনক হলেও বলতে দ্বিধা করেননি তিনি- এ ক্ষেত্রে রোগীর মৃত্যুও অস্বাভাবিক নয়!

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: November 18, 2020, 3:57 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर