করোনার ভ্যাকসিন নেওয়ার পর সাত দিন কাটল না, মণিপুরে মৃত অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী

প্রতীকী ছবি৷ Photo-PTI

গত ১২ ফেব্রুয়ারি করোনা প্রতিষেধকের প্রথম ডোজটি নিয়েছিলেন ওই অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী৷

  • Share this:

    #ইম্ফল: করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নেওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে মৃত্যু হল মণিপুরের এক অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীর৷ শনিবার সরকারি ভাবেই এ কথা জানানো হয়েছে৷ মৃত অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীর নাম সুন্দরী দেবী৷ তিনি বিষুনপুর জেলার কুম্ভা তেরাখার বাসিন্দা ছিলেন৷ গত ১২ ফেব্রুয়ারি করোনা প্রতিষেধকের প্রথম ডোজটি নিয়েছিলেন ওই অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী৷

    জানা গিয়েছে, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি, শুক্রবার শ্বাসকষ্টের সমস্যা শুরু হয় ওই মহিলার৷ এর পর তাঁকে দ্রুত মইরাংয়ের কমিউনিটি হেলথ সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হয়৷ সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়৷ রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, মৃত্যুর প্রকৃত কারণ খতিয়ে দেখতে বিশেষ একটি দল মৃতদেহের ময়নাতদন্ত করবে৷

    ইতিমধ্যেই মৃতের পরিবারের সঙ্গে দেখা করে তাঁদের সহানুভূতি জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী এন বিরেন সিং৷ মৃতের পরিবারের সদস্যদের অভিযোগও শুনেছেন তিনি৷ ময়নাতদন্তের রিপোর্টে যদি সেই অভিযোগগুলির সত্যতা মেলে, তাহলে যথাযথ ক্ষতিপূরণ দেওয়ার আশ্বাসও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ ট্যুইটারে মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, সরকারি কোনও কর্মী বা আধিকারিকের গাফিলতিতে যদি এই মৃত্যু হয়ে থাকে তাহলে তদন্ত করে দেখে কড়া পদক্ষেপের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি৷

    বিষুনপুর জেলার ডেপুটি কমিশনার নীতা আরামবাম জানিয়েছেন, মৃতের পরিবার দাবি করেছে যে ভ্যাকসিন দেওয়ার আগে সুন্দরী দেবী জানিয়েছিলেন যে তাঁর অ্যালার্জির সমস্যা আছে৷ তা সত্ত্বেও তাঁকে প্রতিষেধক দিয়ে দেয় টিকাকরণের দায়িত্বে থাকা সরকারি কর্মীরা৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: