corona virus btn
corona virus btn
Loading

বাড়ি থেকে অনেক দূরে!‌ আমরি হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধার জন্য জন্মদিনের কেক, হ্যাপি বার্থডে গান

বাড়ি থেকে অনেক দূরে!‌ আমরি হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধার জন্য জন্মদিনের কেক, হ্যাপি বার্থডে গান
প্রতীকী ছবি

শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল ছিলই, মঙ্গলবার পরপর দুটি করোনা পরীক্ষা রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় তাঁকে ছেড়ে দেওয়ারও সিদ্ধান্ত নিল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

  • Share this:

#‌কলকাতা:‌ মঙ্গলবার সকালে সল্টলেক আমরি হাসপাতালে করোনা ওয়ার্ডে এক অভিনব দৃশ্য। মন ভালো করে দেওয়া এই ঘটনার সাক্ষী রইলেন সল্টলেক আমরি হাসপাতালের কোভিড ওয়ার্ডে ভর্তি অন্য সব রোগীরাও।

'হ্যাপি বার্থ ডে টু ইউ, হ্যাপি বার্থ ডে ডিয়ার...' হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে সমস্বরে উঠেছে এই কোরাস। করোনা আক্রান্ত অন্যান্য রোগীরা বিস্ময়ে দেখছেন, এক বৃদ্ধাকে চকলেট কেক তুলে দেওয়া হচ্ছে। মোমবাতি ফুঁ দিয়ে নেভানো হচ্ছে। হাওড়া শিবপুর এর বাসিন্দা ৬০ বছর বয়সী বৃদ্ধা গত ২৮ এপ্রিল সল্টলেক আমরি হাসপাতালে ভর্তি হন করোনা আক্রান্ত হয়ে। সেই থেকে এই হাসপাতালই তার বাড়ি হয়ে উঠেছে। পরিবারের কারও সঙ্গেই কোনও যোগ নেই। করোনা আক্রান্ত হওয়ায় পরিবার-পরিজন সবার থেকে বিচ্ছিন্ন তিনি। জন্মদিনের সকালে তাই মনখারাপ করে বসেছিলেন ৬০ বছরের এই বৃদ্ধা। শেষে হাসি ফোটালেন হাসপাতালের নার্সরাই। পরিবার দূরে আছে তো কী হয়েছে? প্রৌঢ়ার ৬০ বছরের জন্মদিনে তাঁর হাতে চকোলেট কেক তুলে দিলেন নার্সরা। মোমবাতিতে ফুঁ দিয়ে সেই কেক কাটলেন বৃদ্ধা। এখানেই শেষ নয়, জন্মদিনের উপহার হিসেবে ওই বৃদ্ধার হাতে একটি বার্থ ডে কার্ড ও কফি মগও তুলে দিলেন নার্সরা। বৃদ্ধার চোখে তখন আনন্দাশ্রু।

আরও সুখবর এল জন্মদিনের দিনেই। শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল ছিলই, মঙ্গলবার পরপর দুটি করোনা পরীক্ষা রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় তাঁকে ছেড়ে দেওয়ারও সিদ্ধান্ত নিল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। বৃদ্ধার সঙ্গে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তার ছেলেও, তিনিও করোনা পজেটিভ ছিলেন। গত সপ্তাহে যদিও সুস্থ হয়ে ছেলে বাড়ি ফিরে গেছে। বাড়ির জন্য প্রথম থেকেই মন কেমন করত বৃদ্ধার।

মঙ্গলবার, ১২ মে, আন্তর্জাতিক নার্সিং দিবস। অন্যান্য হাসপাতালের মতো এই দিনটি পালন করছেন সল্টলেক আমরির নার্সরাও। আর এদিনই ওই বৃদ্ধার জন্মদিন। নার্সরা তখনই এই অভিনব পরিকল্পনা করেন। আমরির নার্সদের কথায়, জন্মদিনে বাড়ি থেকে, পরিবারের সবার থেকে দূরে রয়েছেন ওই তিনি। এই সময় সব মনখারাপ ভুলিয়ে ওই বৃদ্ধার জন্মদিন এক অন্যরকম আনন্দে, উষ্ণতায় ভরিয়ে তোলাই ছিল তাঁদের লক্ষ্য। কোভিড ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অন্যান্য করোনা আক্রান্ত রোগীরাও এই ঘটনায় অনেক বেশি পাবে বলে মনে করছেন আমরি হাসপাতালে নার্সরা।

Avijit Chanda

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: May 12, 2020, 6:50 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर