corona virus btn
corona virus btn
Loading

Coronavirus: ছেলেমেয়েরা বিদেশে, চিন্তায় রাতের ঘুম উড়েছে এই হাইপ্রোফাইল নেতাদের

Coronavirus: ছেলেমেয়েরা বিদেশে, চিন্তায় রাতের ঘুম উড়েছে এই হাইপ্রোফাইল নেতাদের

আমেরিকার বিভিন্ন শহরে পড়ে রয়েছে ছেলে মেয়েরা। চিন্তায় উদ্বিগ্ন রাজ্যের শাসক দলের তিন নেতা। বলা ভালো তিন হাই প্রোফাইল বাবা

  • Share this:
#কলকাতা: করোনার দাপটে বিধ্বস্ত আমেরিকা ৷ সেই আমেরিকার বিভিন্ন শহরে  পড়ে রয়েছে ছেলে মেয়েরা। চিন্তায় উদ্বিগ্ন  রাজ্যের শাসক দলের তিন নেতা। বলা ভালো তিন হাই প্রোফাইল বাবা। তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কন্যা সোহিনী থাকেন আমেরিকার নিউইয়র্ক শহরে। লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিক্স এর এই কৃতী প্রাক্তনী এখন একটি বহুজাতিক সংস্থার সিনিয়র ইকোনমিস্ট । কর্মসূত্রে প্রায় বছর দশেক আমেরিকায়  রয়েছেন সোহিনী । প্রতিদিন অসংখ্য বার বাবার সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ।  দূরে থেকেও বাবার প্রতিদিনকার রুটিন তাঁর নখদর্পনে। করোনা সংক্রমণের জেরে সে দেশের অসংখ্য মানুষের মতোই সোহিনীও ঘর থেকেই কাজ সারছেন । ভাল আছেন, তবু হাজার কাজের ভীড়ে মেয়ের কথাই উদ্বিগ্ন করে তুলেছে পার্থ চট্টপাধ্যায়কে। নিজেও ঘর থেকে বেশীর ভাগ কাজ সারছেন । তবে এরই ফাঁকে নিজের বিধানসভা কেন্দ্রে খাবার বিলি ও মাস্ক বিলির কাজ অব্যাহত। প্রায় প্রতিদিন বিকেলেই এই কাজ চালিয়ে যাওয়ার ফাঁকেই মেয়ের কথা মনে পড়লেই মন খারাপ চেপে বসছে । গার্ডেনরিচের বাড়িতে বাগান থেকে ছাদ পায়চারি করছেন আরেক মেয়ের বাবা। রাজ্য বিধানসভার স্পিকার, বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের মেয়ে সঙ্গীতা বাসুদেব পেশায় ইঞ্জিনিয়ার। বিগত এক দশক ধরে আমেরিকার ওহাইয়োর বাসিন্দা সঙ্গীতা  এখন ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন,  আর মন পড়ে রয়েছে কলকাতাতেই। আগামী ডিসেম্বর মাসে বাড়ি আসবেন বলে আগাম টিকিট কেটে রেখেছেন। তবে বিমান বাবুর আশঙ্কা আদৌ মেয়ে দেশে ফিরতে পারবেন কি না। কবে বিমান পরিষেবা স্বাভাবিক হবে তা এখনও অজানা। আপাতত সারাদিনে অসংখ্য বার ফোন করেই উদ্বেগ দূর করতে চাইছেন বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় ।স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে এটা ওটা ঘরের কাজের ফাঁকেই মোবাইলে মেয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন । ভালোই তো আছে মেয়ে। তবু মন মানানোই কঠিন।
একই অবস্থা রাজ্যের আরেক মন্ত্রী তাপস রায়ের। ছেলে সোমতীর্থ রায়। পেশায় ইঞ্জিনিয়ার। প্রায় বছর নয়েক রয়েছেন আমেরিকায়। কয়েক মাস আগে জানুয়ারিতে ছুটি কাটিয়ে কাজে ফিরেছেন। আবার সামনের ডিসেম্বরে বাড়ি ফেরার কথা। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে কবে ছেলে ফিরবে তা নিয়ে উদ্বিগ্ন তাপস বাবু। বৌবাজারের বাড়িতে সারাদিন ধরেই ছেলের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ রাখছেন তাপস বাবু র স্ত্রী ও মেয়ে। ঘর আর বিধানসভা কেন্দ্রের মাঝে তবু কপালে চিন্তার ভাঁজটা কাটছে না তাপস রায়ের ৷ Sourav Guha
Published by: Elina Datta
First published: April 8, 2020, 4:16 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर