Home /News /coronavirus-latest-news /
খোলা সমস্ত জনবহুল বাজার, এ কেমন লকডাউন !

খোলা সমস্ত জনবহুল বাজার, এ কেমন লকডাউন !

Representational Image

Representational Image

ওষুধের দোকান, মুদিখানা দোকান, এই সমস্ত দোকানগুলো সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চালু রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এই মহকুমার সমস্ত জনবহুল বাজার চালু থাকবে।

  • Share this:

    Image is used for Representational Purpose

    #বসিরহাট: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পাচ্ছে বসিরহাট মহকুমার বিভিন্ন জায়গায়। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটার পর থেকে শুধুমাত্র কন্টেইনমেন্ট জোনে চালু হয়েছে সম্পূর্ণ লকডাউন। এই কন্টেইনমেন্ট জোনের ভেতরে থাকা সমস্ত দোকান বাজার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।

    শুধুমাত্র অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবাগুলি ছাড়া সমস্ত পরিষেবা বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন। ওষুধের দোকান, মুদিখানা দোকান, এই সমস্ত দোকানগুলো সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চালু রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এই মহকুমার সমস্ত জনবহুল বাজার চালু থাকবে। সেখানেই উঠছে প্রশ্ন ৷ মিনাখাঁ-র মালঞ্চ বাজার, সন্দেশখালি সরবেড়িয়া বাজার, ন্যাজাটের কালিনগর বাজার, বসিরহাট পুরাতন বাজার, নতুন বাজার, মায়ের বাজার, স্বরূপনগরে হঠাৎগঞ্জ বাজার-সহ বিভিন্ন জনবহুল বাজারগুলো বন্ধ রাখার কোনও নির্দেশিকা দেয়নি জেলা প্রশাসন।

    এলাকার বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিরোধীদের দাবি এইভাবে জনবহুল বাজারগুলো চালু রেখে শুধুমাত্র কন্টেইনমেন্ট জোনগুলোতে লকডাউন করলে কোনওভাবেই করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে পারবে না প্রশাসন। এই জনবহুল বাজারগুলিতে সকাল-বিকেল বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ক্রেতা ও বিক্রেতারা ভিড় জমাচ্ছেন। সেই সমস্ত ক্রেতা ও বিক্রেতাদের মধ্যে নেই কোনও সামাজিক দূরত্ব। অধিকাংশ ক্রেতা ও বিক্রেতারাই মুখে মাস্ক ব্যবহার করছেন না। যদি এইভাবে এই সমস্ত বাজারগুলো খোলা থাকে তাহলে ক্রমশ বেড়েই চলবে সংক্রমণের সংখ্যা।

    এইভাবে লকডাউন করলে শুধুমাত্র কন্টেইনমেন্ট জোনে থাকা মানুষদের দুর্ভোগের মধ্যে পড়তে হবে। এছাড়া লাভের লাভ কিছুই হবে না ৷ সত্যি লকডাউন করতে হলে দরকার জেলাজুড়ে সম্পূর্ণ লকডাউন । তাহলে হয়তো করোনার থেকে মুক্তি পাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে ।

    তথ্য- অনুপম সাহা

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published:

    Tags: Coronavirus

    পরবর্তী খবর