corona virus btn
corona virus btn
Loading

পিছু হটল উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষ, সব রোগীকেই নেওয়া হবে ভর্তি, মিলবে চিকিৎসা

পিছু হটল উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষ, সব রোগীকেই নেওয়া হবে ভর্তি, মিলবে চিকিৎসা

গত শনিবারই মেডিক্যালে সুপার নির্দেশিকা জারি করে আপাতত মুমূর্ষু বা মরণাপন্ন রোগী ছাড়া কাউকেই ভর্তি নেওয়া হবে না। কেননা মেডিকেলের একাধিক চিকিৎসক, স্বাস্থ্য কর্মী করোনা আক্রান্ত।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: ফের নির্দেশিকায় বদল। উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে আর কোনো বাধা থাকল না। সব রোগীকেই ভর্তি নেওয়া হবে এবং চিকিৎসা পরিষেবা স্বাভাবিক থাকবে। মেডিক্যালের সব বিভাগের প্রধান স্বাস্থ্য আধিকারীকদের নিয়ে বৈঠকের পর একথা জানান উত্তরবঙ্গের করোনা মোকাবিলায় রাজ্যের ভারপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য কর্তা সুশান্ত রায়।

গত শনিবারই মেডিক্যালে সুপার নির্দেশিকা জারি করে আপাতত মুমূর্ষু বা মরণাপন্ন রোগী ছাড়া কাউকেই ভর্তি নেওয়া হবে না। কেননা মেডিকেলের একাধিক চিকিৎসক, স্বাস্থ্য কর্মী করোনা আক্রান্ত। এই মূহূর্তে কোভিড স্পেশাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মেডিক্যালের ১১ জন চিকিৎসক। আর আক্রান্তদের সংস্পর্শে আসায় চিকিৎসক, নার্স, ল্যাব টেকনিশিয়ান মিলিয়ে প্রায় ৮০-র কাছাকাছি স্বাস্থ্য কর্মী কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। স্বাস্থ্য কর্মীর সংখ্যা কমে আসায় এই সিদ্ধান্ত নেয় মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষ।

এদিন এনিয়ে বৈঠকে বসেন স্বাস্থ্য কর্তা সুশান্ত রায়। তিনি জানান, এই মেডিক্যালে কলেজের ওপর একটা বড় অংশের রোগীর চিকিৎসা নির্ভরশীল। অন্য রোগে আক্রান্তদের চিকিৎসা বন্ধ হলে সমস্যায় পড়বেন বহু রোগী। আর তাই বিভাগীয় প্রধানদের সঙ্গে কথা বলে ফের পরিষেবা স্বাভাবিক রাখার কথা ঘোষণা করেন। তিনি জানান, নির্দেশিকায় বদল আনা হয়েছে। এখন থেকে সব রোগীরই চিকিৎসা হবে এখানে চিকিৎসকদের মধ্যে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে মূলত কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে। সেখানে পিপিই কিট ব্যবহৃত হয়না। তাই পরিযায়ী শ্রমিকদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার সময়েই সংস্পর্শে আসছেন চিকিৎসকেরা। তাই সংক্রমিত হচ্ছেন চিকিৎসকেরা। সেইসঙ্গে তিনি জানান, শিলিগুড়ির দুই কোভিড হাসপাতালের ওপর চাপ কমাতে আজ থেকেই আলিপুরদুয়ারে চালু কোভিড স্পেশাল হাসপাতাল।

সোমবার চালু হবে কোচবিহারেও। দার্জিলিংয়ের ত্রিবেনীতেও কোভিড স্পেশাল হাসপাতাল চালু হবে। তাহলে পাহাড়ের আক্রান্তরাও নামবে না শিলিগুড়িতে। অন্যদিকে প্রথম সারির করোনা যোদ্ধাদের চিকিৎসার জন্য জলপাইগুড়িতে ২০০ বেডের বিশেষ কোভিড হাসপাতাল তৈরী করা হবে। সেখানে চিকিৎসক, প্রশাসনিক কর্তা, পুলিশ, দমকল কর্মী, সাংবাদিকেরা আক্রান্ত হলে তাদের কোভিড চিকিৎসা হবে। এজন্য পুরুষ ও মহিলাদের জন্য আলাদা আলাদা ২০০ বেডের ব্যবস্থা থাকছে। সরকারী সবুজ সংকেত এলেই তা চালু করা হবে।

Partha Pratim Sarkar

Published by: Elina Datta
First published: June 8, 2020, 9:23 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर