corona virus btn
corona virus btn
Loading

#Coronavirus৷বিদেশে না গিয়েও করোনায় আক্রান্ত প্রৌঢ়, রাজ্যে আক্রান্ত বেড়ে ৪

#Coronavirus৷বিদেশে না গিয়েও করোনায় আক্রান্ত প্রৌঢ়, রাজ্যে আক্রান্ত বেড়ে ৪
তাই রিপোর্টে বলা হয়েছে, O ব্লাড গ্রুপ মানেই কিছু হবে না, পুরোপুরি সেফ, এটা ভাববার কোনও কারণ নেই৷ তাই সচেতন থাকতেই হবে৷

সল্টলেকের বেসরকারি ওই হাসপাতালে জ্বর, কাশির মতো সমস্যা নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন ওই ব্যক্তি৷ তাঁর অবস্থা বেশ আশঙ্কাজনক বলেই জানা গিয়েছে৷

  • Share this:

#কলকাতা: হাবড়ার পর এবার দমদম৷ এবার এক প্রৌঢ়ের শরীরে করোনা ভাইরাসের খোঁজ মিলল৷ সবথেকে আশঙ্কার কথা, এই প্রৌঢ়ের বিদেশ যাওয়ার কোনও রেকর্ড নেই৷ ফলে কীভাবে তিনি করোনায় আক্রান্ত হলেন, তা নিয়ে উদ্বিগ্ন চিকিৎসকরা৷ আক্রান্ত রোগীকে এই মুহূর্তে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে বলে খবর৷

জানা গিয়েছে, দমদমের বাসিন্দা ওই বৃদ্ধ সল্টলেকের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি৷ তিনি করোনা আক্রান্ত সন্দেহে তাঁর শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে এসএসকেএম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল৷ সেখানে পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছিল৷ নিশ্চিত হওয়ার জন্য ফের একবার ওই বৃদ্ধের লালা রস এবং রক্তের নমুনা বেলেঘাটা নাইসেডে পাঠানো হয়৷ সেখানেও পরীক্ষার করে ওই প্রৌঢ়ের শরীরে করোনা ভাইরাস থাকার প্রমাণ মিলেছে৷

সল্টলেকের বেসরকারি ওই হাসপাতালে জ্বর, কাশির মতো সমস্যা নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন ওই ব্যক্তি৷ ওই রোগীর শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা ছিলই৷ গত ১৯ তারিখ থেকে তাঁর শারীরিক অবস্থার আচমকা অবনতি হতে থাকে৷ প্রচণ্ড শ্বাসকষ্টের সমস্যা দেখা দেয়৷ এর পরেই তাঁর করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা৷ বর্তমানে তাঁর অবস্থা বেশ আশঙ্কাজনক বলেই জানা গিয়েছে৷ বর্তমানে ওই প্রৌঢ়কে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে৷সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া রুখতে ওই প্রৌঢ়কে আইসোলেশন আইসিইউ-তে রাখা হয়েছে৷ তাঁর চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা ডাক্তার এবং নার্সদের ক্ষেত্রেও যাবতীয় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে৷

হাসপাতালে ওই রোগীর পরিবার যে তথ্য দিয়েছিল, তাতে তিনি সাম্প্রতিককালে বিদেশ যাননি বলেই দাবি করা হয়েছিল৷ তবে তিনি কোনও করোনা আক্রান্ত বা বিদেশ ফেরত কোনও ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছিলেন কিনা, সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে আক্রান্তের পরিবারের সঙ্গে বিশদে কথা বলছেন চিকিৎসকরা৷ ভারতের মধ্যেই তিনি অন্য কোনও শহরে গিয়েছিলেন কি না, তাও জানার চেষ্টা করা হচ্ছে৷

 
First published: March 21, 2020, 8:34 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर