কর্ণাটকে স্কুল খুলতেই করোনা ধরা পড়ল ২৫ শিক্ষক-শিক্ষিকার

কর্ণাটকে স্কুল খুলতেই করোনা ধরা পড়ল ২৫ শিক্ষক-শিক্ষিকার
স্কুল খুলতেই ২৫ শিক্ষক-শিক্ষিকার করোনা, চিন্তায় পড়ুয়া থেকে অভিভাবক

স্কুল খোলার পাঁচ দিনের মধ্যেই কর্ণাটকের ২৫ শিক্ষক-শিক্ষিকার করোনা ধরা পড়ল৷ এই ঘটনায় ভয় ধরেছে পড়ুয়া ও তাদের অভিভাবকদের মনে৷ শুধু বেলাগাভি জেলাতেই ১৮ জন শিক্ষক-শিক্ষিকার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে৷

  • Share this:

    #বেঙ্গালুরু: স্কুল খোলার পাঁচ দিনের মধ্যেই কর্ণাটকের ২৫ শিক্ষক-শিক্ষিকার করোনা ধরা পড়ল৷ এই ঘটনায় ভয় ধরেছে পড়ুয়া ও তাদের অভিভাবকদের মনে৷ শুধু বেলাগাভি জেলাতেই ১৮ জন শিক্ষক-শিক্ষিকার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে৷

    কর্ণাটক সরকার আগেই নির্দেশিকা জারি করেছিল যে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার আগেই সকল টিচিং ও নন-টিচিং স্টাফেদের বাধ্যতামূলক ভাবে করোনা পরীক্ষা করাতে হবে৷ হাজার হাজার পরীক্ষার পরেই করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসতে শুরু করেছে৷

    বেলগাভির ডেপুটি কমিশনার এমজি হীরেমথ সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, বেলাগাভির ১৮ জন শিক্ষক-শিক্ষিকার পাশাপাশি চিক্কোড়ির চার জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে৷ তিনি বলছেন,"সরকারের বিদ্যাগম কর্মসূচির আওতায় যাবতীয় সতর্কতা মেনেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি খুলেছিল৷ আমরা স্কুলগুলি সিল করে দিয়েছি৷ এক সপ্তাহ পর পুরো স্যানিটাইজ করেই ফের খুলব৷"


    কর্ণাটকের মেডিক্যাল শিক্ষামন্ত্রী ডাক্তার কে সুধাকর বলছেন,"শুধু দশম শ্রেণিতে প্রায় ১০ লক্ষ শিক্ষার্থী রয়েছে। কিছু সতর্কতা সত্ত্বেও কর্মীদের মধ্যে করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এটা স্বাভাবিক৷ আমরা তাঁদের পরীক্ষা করিয়ে আইসোলেশনে পাঠিয়ে চিকিৎসা চলছে৷ যেহেতু এখানে লক্ষ লক্ষ শিক্ষার্থীর ভবিষ্যত জড়িয়ে আছে, তাই আমি আবেদন করছি স্বাভাবিকতা না হওয়া পর্যন্ত আতঙ্ক যেন ছড়িয়ে দেওয়া না হয়৷

    এই ঘটনায় একাধিক পড়ুয়ার পাশাপাশি অভিভাবকদের মনেও ভয় ধরেছে৷ এক কলেজ পড়ুয়ার বাবা বিজয় প্রসাদ বলছেন, "কেউ শিক্ষার গুরুত্ব অস্বীকার করছে না৷ কিন্তু তাবলে তা সন্তানের জীবনের বিনিময় নয়৷ আমি জানি না, কেন সরকার স্কুল চালাতে মরিয়া! ভ্যাকসিন যখন দোরগোড়ায়, তাহলে আর কয়েক'টা সপ্তাহ বা মাস অপেক্ষা করলেই হয়৷"

    Published by:Subhapam Saha
    First published: