Home /News /coronavirus-latest-news /
করোনা উপসর্গ থাকা তৃতীয় লিঙ্গের রোগীর মৃত্যু, চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে তাণ্ডব হাসপাতালে

করোনা উপসর্গ থাকা তৃতীয় লিঙ্গের রোগীর মৃত্যু, চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে তাণ্ডব হাসপাতালে

১০ থেকে ১৫ জন তৃতীয় লিঙ্গের সঙ্গী এসে হামলা চালান হাসপাতালের জরুরি বিভাগ এবং আইসোলেশন ওয়ার্ডে।

  • Share this:

#কামারহাটিঃ গত দুদিন ধরে এমনিতেই কামারহাটি সাগর দত্ত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আতঙ্ক দানা বেঁধেছে। হাসপাতালে কর্মরত দুই স্বাস্থ্যকর্মী ভাই-বোন দুজনেই আক্রান্ত হওয়ায় হাসপাতাল সুপার কুড়ি জন চিকিৎসক ও ১৫ জন স্বাস্থ্য কর্মী-সহ মোট ৩৬ জন চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীকে কোয়ারেন্টাইনে পাতান হয়েছে। হাসপাতালের স্বাভাবিক পরিষেবা অনেকটাই ব্যাহত।

এরই মাঝে শুক্রবার সাগর দত্ত হাসপাতালে ভাঙচুর তাণ্ডবে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে গোটা এলাকা। ঘটনার সূত্রপাত দুপুর সাড়ে বারোটা নাগাদ। ওই হাসপাতালের এক আধিকারিক জানান, একজন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ জ্বর, সর্দি, গলায় ব্যথা,  শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে আইসোলেশনে গত কোয়েকদিন ধরে ভর্তি ছিলেন। বৃহস্পতিবার তাঁর লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। শুক্রবার সকালে হঠাৎ করে তার অবস্থার অবনতি হয়। চিকিৎসকরা প্রাণপন লড়াই করেও তাকে বাঁচাতে পারেননি। মৃত্যুর খবর পেয়ে তাঁর সঙ্গীরা চলে আসেন হাসপাতালে। ১০ থেকে ১৫ জন তৃতীয় লিঙ্গের সঙ্গী এসে হামলা চালান হাসপাতালের জরুরি বিভাগ এবং আইসোলেশন ওয়ার্ডে। সেখানে কম্পিউটার থেকে শুরু করে চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর করেন তাঁরা। দ্রুত হাসপাতাল কর্মীরা  চলে আসেন। তাঁরা বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু লাভ হয়নি। এরপর খবর দেওয়া হয় বেলঘরিয়া থানায়। ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছয় পুলিশ এবং র‍্যাফ। একজনকে আটক করে পুলিশ।

এদিকে মৃতের লালা রসের রিপোর্ট এখনও এসে পৌঁছয়নি। ফলে জানা যায় নি, তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কিনা। বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘিরে রেখেছে হাসপাতালের জরুরি বিভাগ এবং আইসোলেশন বিভাগ। অন্যদিকে মৃতের সঙ্গীরা জানান, সাগর দত্ত হাসপাতালে ভর্তি করার পর থেকেই কোনওরকম চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া হয়নি। একপ্রকার প্রায় বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু হয়েছে তাদের সঙ্গীর। টিটাগর থেকে মৃতের অনেক সঙ্গী পরবর্তীকালে হাসপাতালে আসেন। গোটা ঘটনায় সাগর দত্ত হাসপাতালে জুড়ে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। চিকিৎসাধীন অন্যান্য রোগীর আত্মীয়রা ভয়ে হাসপাতাল ছেড়ে বেরিয়ে যায়। অন্যদিকে ওয়েস্টবেঙ্গল ডক্টরস ফোরাম, ডক্টর ফর পেশেন্টস বা ডোপা-সহ বিভিন্ন চিকিৎসক সংগঠন এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী তথা স্বাস্থ্য মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লিখে এই সংগঠন গুলো জানায়,অবিলম্বে দোষীদের গ্রেফতার করে উপযুক্ত শাস্তি দিতে হবে।

ABHIJIT CHANDA

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Kamarhati sagar Dutta hospital, Ransacked hospital, Third gender death

পরবর্তী খবর