corona virus btn
corona virus btn
Loading

দিল্লি থেকে আসা ৯ আরপিএফ কর্মীর শরীরে করোনা, ক্ষুব্ধ রাজ্য সরকার

দিল্লি থেকে আসা ৯ আরপিএফ কর্মীর শরীরে করোনা, ক্ষুব্ধ রাজ্য সরকার

গত ১৪ এবং ১৫ এপ্রিল দিল্লি থেকে রেলের পার্সেল ভ্যানে রাজ্যে আসেন ২৮ জন আরপিএফ কর্মী৷

  • Share this:

#কলকাতা: দিল্লি থেকে রাজ্যে আসা ৯ আরপিএফ কর্মীর শরীরে মিলল করোনা সংক্রমণ৷ আর তা নিয়েই সরাসরি আরপিএফ-এর ডিজি-কে ফোন করে অভিযোগ জানালেন রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা৷ লকডাউন না ওঠা পর্যন্ত রাজ্যে কোনও আরপিএফ কর্মীকে না পাঠানোর জন্য রাজ্যের তরফে আরপিএফ-কে অনুরোধ করা হয়েছে৷ সেই অনুরোধ মেনেও নিয়েছে রেল পুলিশ৷

এ দিন নবান্নে মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা জানান, গত ১৪ এবং ১৫ এপ্রিল দিল্লি থেকে রেলের পার্সেল ভ্যানে রাজ্যে আসেন ২৮ জন আরপিএফ কর্মী৷ এঁদের মধ্যে ওড়িশায় চলে যাওয়া এক আরপিএফ কর্মী অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁর করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে৷ রাজ্যের তরফে এর পর ওই জওয়ানের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গে আসা আরও কুড়িজন আরপিএফ কর্মীর করোনা ভাইরাস সংক্রমণের পরীক্ষা করা হয়৷ তার মধ্যে আরও ৮ জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে৷

এই আটজন আরপিএফ কর্মীর মধ্যে ৬ জন খড়্গপুরে কর্মরত রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে৷ একজন করে কর্মরত রয়েছেন উলুবেড়িয়া এবং মেচেদায়৷ এই বিষয়টি সামনে আসার পর স্বভাবতই ক্ষুব্ধ হয় রাজ্য প্রশাসন৷ এ দিন নবান্নেও

মুখ্যসচিবের কথায় তা স্পষ্ট হয়ে যায়৷ ওই আরপিএফ জওয়ানদের মাধ্যমে রাজ্যের আরও অনেকের যে সংক্রমিত হওয়ায় আশঙ্কা বেড়ে যায়, তা স্বীকার করে নেন মুখ্যসচিব৷ তিনি বিষয়টি নিয়ে রাজ্যের আপত্তির কথা সরাসরি ফোন করে রেল পুলিশের ডিজি-কে জানান৷ মুখ্যসচিব জানিয়েছেন, রেল পুলিশ আশ্বস্ত করে জানিয়েছেন যে লকডাউন শেষ না হওয়া পর্যন্ত আর কোনও আরপিএফ কর্মীকে রাজ্যে পাঠানো হবে না৷

First published: April 24, 2020, 8:23 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर