corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউনেও ছড়াচ্ছে সংক্রমণ ! কলকাতায় কন্টেইনমেন্ট জোন বেড়ে ৩১৮

লকডাউনেও ছড়াচ্ছে সংক্রমণ ! কলকাতায় কন্টেইনমেন্ট জোন বেড়ে ৩১৮
Representational Image

কলকাতার মাথাব্য়থার কারণ এখন কন্টেইনমেন্ট জোন। সংক্রমণের ম্য়াপ চওড়া হয়েছে শহরে।

  • Share this:

#কলকাতা: লকডাউন-থ্রি শুরু হয়েছে। তিনটি জোনেই কিছু না কিছু ছাড় মিলেছে। তবে কলকাতার মাথাব্য়থার কারণ এখন কন্টেইনমেন্ট জোন। সংক্রমণের ম্য়াপ চওড়া হয়েছে শহরে। কলকাতায় সবমিলিয়ে এখন ৩১৮টি কন্টেইনমেন্ট জোন।

টেস্ট বাড়ছে। করোনা পজিটিভের সংখ্য়াও বাড়ছে। আর তাই কন্টেইনমেন্ট জোন বাড়ছে শহর কলকাতায়। ২৭ এপ্রিল কলকাতা পুরসভার ৯৭টি ওয়ার্ডে সংক্রমণ ছিল। কিন্তু, ৫ মে-র তালিকায় দেখা যাচ্ছে ১০৯টি ওয়ার্ডে সংক্রমণ ছড়িয়েছে। কন্টেইনমেন্ট জোন বেড়ে হয়েছে ৩১৮।

সংক্রমণের ম্য়াপে এখন সবচেয়ে স্পর্শকাতর মধ্য, পূর্ব ও উত্তর কলকাতা। লকডাউন থাকা সত্বেও, এই এলাকাগুলিতেই সংক্রমণ দ্রুত ছড়াচ্ছে। সবচেয়ে খারাপ অবস্থা ৭ নম্বর বরো এলাকায়। এখানে কনটেইনমেন্ট জোন ৪১ থেকে বেড়ে হয়েছে ৫২। ৬ নম্বর বরোতেও ১৯ থেকে কন্টেইনমেন্ট জোন বেড়ে হয়েছে ৩৭। সংক্রমিত এলাকার নিরিখে তৃতীয় স্থানে কলকাতা পুরসভার ৪ নম্বর বরো। এখানে ২৬ থেকে বেড়ে কনটেইনমেন্ট জোন এখন ৩৫টি। কলকাতা পুরসভার ৫ নম্বর বরোতেও সংক্রমিত এলাকার সংখ্যা ৩৩।

৭ নম্বর বরোর ৬৬ নম্বর ওয়ার্ডে পড়ছে তপসিয়া এলাকা। এখানে কয়েক দিনের মধ্যেই সংক্রমিত এলাকা ১০ থেকে বেড়ে ১৪-তে পৌঁছেছে। ৬ নম্বর বরোর ৬০ নম্বর ওয়ার্ডে বেনিয়াপুকুরের লিন্টন স্ট্রিট এলাকায় সংক্রমিত এলাকা ১০টি।

পাঁচের বেশি কন্টেইনমেন্ট জোন রয়েছে এরকম ওয়ার্ডের সংখ্য়া ১৭। ৭টি করে কন্টেইনমেন্ট জোন রয়েছে ২৯, ৫৯ ও ৬৫ নম্বর ওয়ার্ডে। একইভাবে ২৮, ৪০ ও ৫৮ নম্বর ওয়ার্ডে ৬টি করে সংক্রমিত এলাকা রয়েছে। ২ নম্বর বরোর ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে রয়েছে ৮টি কন্টেইনমেন্ট জোন।

কিছু এলাকায় সংক্রমণ বাড়লেও,কয়েকটি ওয়ার্ডে সংক্রমণ কমেছে। দক্ষিণ কলকাতার ভবানীপুরে পুরসভার ৭০ নম্বর ওয়ার্ড ও রাসবিহারীর ৮৮ নম্বর ওয়ার্ড কন্টেইনমেন্ট জোন থেকে বেরিয়ে এসেছে। তবে পরিসংখ্যান থেকে স্পষ্ট, সতর্ক না থাকলে আরও ছড়াতে পারে সংক্রমণ।

First published: May 5, 2020, 11:43 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर