corona virus btn
corona virus btn
Loading

COVID-19: আক্রান্ত আরও ২৫! পূর্ব বর্ধমানে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ

COVID-19: আক্রান্ত আরও ২৫! পূর্ব বর্ধমানে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ
File Photo

সোমবার পর্যন্ত এই জেলায় মোট ৩৫৯ জন বাসিন্দা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে ২৩০ জন চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

  • Share this:

#বর্ধমান: করোনার সংক্রমণে লাগাম লাগানো যাচ্ছে না পূর্ব বর্ধমান জেলায়। এই জেলায় নতুন করে ২৫ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এই নিয়ে গত ৪৮ ঘণ্টায় এই জেলায় ৬০ জন করোনা আক্রান্ত হলেন। সোমবার পর্যন্ত এই জেলায় মোট ৩৫৯ জন বাসিন্দা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে ২৩০ জন চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

মৃত্যু হয়েছে দু’জনের। ১২৭ জন করোনা আক্রান্ত এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছেন। জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, বর্ধমান, কালনা, কাটোয়া শহর এলাকায় লকডাউন ও বিধি নিষেধ কড়াকড়ি করা হয়েছে। কিছু কিছু গ্রামীণ এলাকাকেও লকডাউনের আওতায় আনার কথা ভাবা হচ্ছে। সেই সঙ্গে ওইসব এলাকাগুলিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ও মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করতে জোরদার প্রচার চালানো হচ্ছে।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় নতুন করে আক্রান্ত পঁচিশ জনের মধ্যে ১২ জনই জামালপুর ব্লকের বাসিন্দা। এক সঙ্গে একদিনে জামালপুরে ১২ জন আক্রান্ত হওয়ায় উদ্বিগ্ন জেলা প্রশাসন। আক্রান্তদের মধ্যে অনেকেরই বাইরে যাওয়ার কোন তথ্য নেই। তাই আক্রান্ত রাজ্যগুলি থেকে আসা বাসিন্দাদের মাধ্যমে এলাকায় করোনার সংক্রমণ ছড়াচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে। এছাড়াও বর্ধমান এক নম্বর ব্লকে নতুন করে একজন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। আউশগ্রাম দু’নম্বর ব্লকেও আক্রান্ত হয়েছেন একজন। কাটোয়া শহরে নতুন করে দু’জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ মিলেছে। কাটোয়া এক নম্বর ব্লক, কাটোয়া দু'নম্বর ব্লক, কেতুগ্রাম এক নম্বর ব্লকে একজন করে করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। কেতুগ্রাম দু’নম্বর ব্লকে আক্রান্ত হয়েছেন দু’জন। এছাড়া মেমারি এক নম্বর ব্লকে একজন, পূর্বস্থলী দু'নম্বর ব্লকে দু’জন ও রায়না এক নম্বর ব্লকে নতুন করে একজন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় কন্টেইনমেন্ট জনসংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৮০টি। এর মধ্যে বর্ধমান শহরে রয়েছে দশটি কন্টেইনমেন্ট জোন। কাটোয়া শহরে নটি কন্টেইনমেন্ট জোন। রয়েছে কালনা শহরে রয়েছে দুটি কন্টেইনমেন্ট জোন। এছাড়া একটি করে কন্টেইনমেন্ট জোন রয়েছে দাঁইহাট ও মেমারি পুরসভা এলাকায়। গ্রামীণ এলাকার মধ্যে সবচেয়ে বেশি কন্টেইনমেন্ট জোন রয়েছে কেতুগ্রাম এক নম্বর ব্লকে। সেখানে আটটি জায়গায় কন্টেইনমেন্ট জোন রয়েছে। এছাড়া খণ্ডঘোষ, মেমারি এক নম্বর ব্লক, মেমারি দু'নম্বর ব্লক, মঙ্গলকোট ব্লক, কালনা দু’নম্বর ব্লকে চারটি করে কন্টেইনমেন্ট জোন রয়েছে। পূর্বস্থলী এক নম্বর ব্লকে ছটি, পূর্বস্থলী দু'নম্বর ব্লকে পাঁচটি কন্টেইনমেন্ট জোন  রয়েছে। কালনা এক নম্বর ব্লকেও পাঁচটি কন্টেইনমেন্ট জোন রয়েছে। এছাড়া বর্ধমান এক নম্বর ব্লকে তিনটি, বর্ধমান দু'নম্বর ব্লকে দুটি, কাটোয়া এক নম্বর ব্লকের তিনটি, কাটোয়া দু’নম্বর ব্লকে দুটি, রায়না এক নম্বর ব্লকে একটি ও রায়না দু’নম্বর ব্লকে দুটি কন্টেইনমেন্ট জোনে লকডাউন চলছে।

শরদিন্দু ঘোষ

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: July 20, 2020, 1:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर