corona virus btn
corona virus btn
Loading

গ্রামের বাইরে ঠায় বসে তেলঙ্গানার অখিলা!‌ তাঁর প্রতিজ্ঞা, লকডাউন সফল করে করোনাকে হারাবেন

গ্রামের বাইরে ঠায় বসে তেলঙ্গানার অখিলা!‌ তাঁর প্রতিজ্ঞা, লকডাউন সফল করে করোনাকে হারাবেন

আমি আমার নিজের গ্রামের বাসিন্দাদের নিয়ন্ত্রণ করতে পারব। আর সেই কারণেই আমি লাঠি হাতে গ্রামের মুখে বসে আছি

  • Share this:

#‌মন্দনাপুরম:‌ একাহাতে নিজের গ্রামকে রক্ষা করছেন ২৩ বছরের অখিলা‌। তিনি একাধারে ছাত্রী এবং তেলঙ্গানা মন্দনাপুরম এলাকার চিন্তাপল্লী গ্রামের সরপঞ্চ। অন্য রাজ্য সরকারের মতো তেলেঙ্গানা সরকার ঘোষণা করেছে করোনাভাইরাস আটকাতে লকডাউন লাগু করতে হবে। আর সেই ঘোষণার দিন থেকে গ্রামের বাইরে এভাবেই লাঠি হাতে বসে আছেন ২৩ বছরের অখিলা। বসে আছেন, কারণ গ্রামের কোন নাগরিক যাতে বাইরে যেতে না পারেন, যাতে বাইরে থেকে কেউ এসে গ্রামে ছড়িয়ে না দিতে পারে মারণ ভাইরাস।

তেলঙ্গানার এই অদ্ভুত দৃশ্য প্রশাসনকে অবাক করেছে। যেভাবে অখিলা নাছোড়বান্দা হয়ে নিজের গ্রামকে রক্ষা করার প্রকল্প নিয়েছেন, তাতে সাধুবাদ দিচ্ছেন অনেকে। তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও, অনেকদিন আগেই ঘোষণা করেছিলেন রাজ্যে ভাইরাস আটকাতে লকডাউন কার্যকর করতে হবে। সেই নিয়ম ভেঙেছেন অনেকেই। কিন্তু নিয়ম পালনে অগ্রণী ভূমিকা নিয়েছে এই ২৩ বছরের বিটেক ছাত্রী।

নিউজ 18‌–কে সেই অখিলা জানিয়েছেন, ‘‌রাজ্য সরকার ইতিমধ্যে লকডাউন ঘোষণা করেছে। এখনই সময় আমাদের পরিবার ও আমাদের দেশকে এই করোনা ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচানোর। আমি হয়তো সবাইকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারব না। কিন্তু আমি আমার নিজের গ্রামের বাসিন্দাদের নিয়ন্ত্রণ করতে পারব। আর সেই কারণেই আমি লাঠি হাতে গ্রামের মুখে বসে আছি। যাতে কেউ আমাদের গ্রামের কোন পরিবারকে ক্ষতি করতে না পারে।’‌

গ্রামের এক বাসিন্দা জানিয়েছেন, ‘অখিলা মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পর থেকেই এখানে বসে আছেন। আমরা সবাই তাকে সাহায্য করছি, সমর্থন জানাচ্ছি। ওঁর নাছোড়বান্দা মনোভাবের জন্য আমরা শেষ পর্যন্ত রক্ষা পাবো বলেই আমাদের মনে হয়।

অন্য রাজ্য সরকারের মতোই তেলঙ্গানা সরকার রাজ্যকে করোনা মুক্ত করতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত সেই রাজ্যে ৩৯ জন করোনা আক্রান্তের খবর মিলেছে। মুখ্যমন্ত্রী ইতিমধ্যে ঘোষণা করেছেন, যাঁরা এই লকডাউন ভঙ্গ করবেন, তাঁদের কঠোর শাস্তি হবে।

First published: March 26, 2020, 2:45 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर