রাজধানী এক্সপ্রেসে করোনা আতঙ্ক!‌ হাতে ‘‌গৃহবন্দী’‌ থাকার স্ট্যাম্প, দম্পতিকে নামিয়ে দিল রেল

রাজধানী এক্সপ্রেসে করোনা আতঙ্ক!‌ হাতে ‘‌গৃহবন্দী’‌ থাকার স্ট্যাম্প, দম্পতিকে নামিয়ে দিল রেল
Representative image

সেই আতঙ্কের ছাপ পড়েছে রাজধানী এক্সপ্রেসের যাত্রীদের মধ্যেও

  • Share this:

#‌কাজিপেটভারতীয় রেলেও করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক তাড়া করে বেড়াচ্ছে। প্রতিদিন ভিড়ের মধ্যে ট্রেনে যাতায়াত করেন লক্ষ লক্ষ মানুষ। সেখানে করোনা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা সবচেয়ে বেশি। আর সেই কারণেই ট্রেনের যাত্রীরাও থাকেন আতঙ্কে। সেই আতঙ্কের ছাপ পড়েছে রাজধানী এক্সপ্রেসের যাত্রীদের মধ্যেও। তাই যে মুহূর্তে যাত্রীরা বুঝতে পেরেছেন, একজন সহযাত্রী ‘‌গৃহবন্দী’‌ থাকার নির্দেশ লুকিয়ে ট্রেনে উঠে পড়েছেন, সঙ্গে বেঁধেছে হুলুস্থুল কাণ্ড বাঁধল।

ঘটনাটি ঘটেছে তেলঙ্গনার কাজিপেট স্টেশন বেঙ্গালুরু থেকে দিল্লি গামী রাজধানী এক্সপ্রেস যাওয়ার সময়ে। শনিবার সকাল ৯.‌৪৫ মিনিটে এই রাজধানী এক্সপ্রেসটি কাজিপেট স্টেশনে এসে দাঁড়ায়। তখন ওই ব্যক্তি হাত ধুতে যান। সেই সময়েই এক সহযাত্রীর চোখে পড়ে হাতে গৃহবন্দী থাকার স্ট্যাম্প। সঙ্গে সঙ্গে বিষয়টি ট্রেনের টিকিট পরীক্ষকের কানে তোলেন বাকি যাত্রীরা। এরপরে স্টেশনে ট্রেনটিকে থামিয়েই ওই দম্পতিকে নামিয়ে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কামরাটি এরপর তালাবন্ধ করে শীতাতপ নিয়ন্ত্রক ব্যবস্থা বন্ধ করে দেওয়া হয়। তারপর চলে স্যানিটাইজ করার প্রক্রিয়া। ফের বেলা সাড়ে এগোরটার সময় রওনা দেয় ট্রেনটি।

এই ঘটনাটি ট্যুইটারে প্রকাশ করে ভারতীয় রেল। ঘটনাটি বিবৃত করার পর রেলের পক্ষ থেকে লেখা হয়, ভারতীয় নাগরিকদের সামাজিক দূরত্ব বা সোশ্যাল ডিস্টেন্সিং রাখতে বলা হচ্ছে। কোয়ারেন্টিনে থাকার সময় নিয়ম মানতে বলা হচ্ছে।

First published: March 21, 2020, 5:09 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर