করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

'লকডাউনে বিনা কারণে বাড়ি থেকে বেরোলেই ১১ হাজার জরিমানা'!২মাস লকডাউনে এতেই সুরাহা

'লকডাউনে বিনা কারণে বাড়ি থেকে বেরোলেই ১১ হাজার জরিমানা'!২মাস লকডাউনে এতেই সুরাহা

সামগ্রিকভাবে ফ্রান্সের এই শহর মোটা টাকার জরিমানা দিয়ে কীভাবে লকডাউনকে সফল করছে তারই বার্তা দিলেন বিজ্ঞানী প্রবহন চক্রবর্তী ।

  • Share this:

#প্যারিস: বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে চলেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বারবারই বিশ্বজুড়ে লকডাউন চালিয়ে যাওয়ার পক্ষেই সওয়াল করছে। বিশেষত প্রতিষেধক টিকা তৈরি না হওয়া পর্যন্ত লকডাউন একমাত্র এই ভাইরাসকে আটকাতে পারে বলে একাধিক চিকিৎসক ও বিজ্ঞানীরা বিশ্বজুড়ে দাবি করছেন। করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে এখনও পর্যন্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সর্বাধিক আক্রান্ত হয়েছে। তারই সঙ্গে আক্রান্তের সংখ্যা নিরিখে ফ্রান্স এখন চতুর্থ স্থানে। তবে এক মাসেরও বেশি সময়সীমা ধরে লকডাউন চলার জেরে অনেকটাই আক্রান্তের হার কমানো গিয়েছে সেখানে। ফ্রান্সের "ইনস্টিটিউট অফ ফাংশানাল জেনোমিক্সের" বিজ্ঞানী প্রবহন চক্রবর্তী এরকমই কিছু অভিজ্ঞতার কথা জানাচ্ছেন। এই দেশে লকডাউন কীভাবে সফল হয়েছে তার অভিজ্ঞতার কথা ফ্রান্সের মন্টপেলিয়ার থেকে জানাচ্ছেন এই বিজ্ঞানী।

বিজ্ঞানী চক্রবর্তী জানাচ্ছেন "গত ১৬ ই মার্চ থেকে লকডাউন চলছে দেশজুড়ে। প্রথম দফায় ১ মাসের জন্য এবং পরের দফায় আরও ১মাস  চলছে লকডাউন। বাইরে শুধুমাত্র বেরনো যাবে প্রয়োজনীয় কাজেই। যেমন বাজার করতে বা ডাক্তার দেখাতে বা আপনি যদি নিজেই ডাক্তার হন তাহলেই শুধুমাত্র বেরোনোর ছাড়। শুধু তাই নয় প্রত্যেকবার ঘর থেকে বেরোনোর সময় আপনার কাছে থাকতেই হবে হাতে লেখা বা ছাপা একটি ফর্ম যার মধ্যে থাকতে হবে আপনার নাম, ঠিকানা, জন্মতারিখ, কী প্রয়োজনে বেরিয়েছেনইত্যাদি। যদি এগুলো নিয়ে বেরোতে ভুলে যান তাহলে পুলিশ আপনাকে ধরলেই ১৩৫ ইউরো যা ভারতীয় মুদ্রায় ১১ হাজার টাকা জরিমানা করবে। গোটা ফ্রান্স জুড়ে রিসেশন চললেও রয়েছে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতি। এই দেশে মৃতের সংখ্যা কুড়ি হাজার ছাড়িয়েছে। তবে সুখবর এটাই গত কয়েক দিনে ক্রমশ কমছে আক্রান্তের হার। দেশের প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন ১১ ই মে থেকে দফায় দফায়় শুরু হবে লকডাউন তোলার প্রক্রিয়া। ইনস্টিটিউট পাস্তুরের একদল বিজ্ঞানীদের মতে লকডাউনের ফলে সংক্রমণের হার কমেছে ৮৪ শতাংশ। তাই বলবো বন্দী থাকা বড় দায় হলেও বিজ্ঞানে বিশ্বাস রেখে দরজা আটকে রাখুন। দেওয়াল জুড়ে ছবি আঁকুন, পাতার পর পাতা জুড়ে লিখে ফেলুন গল্প,কবিতা। অনেকটা এই ভাবেই এখানকার মানুষ বাইরে না বেরিয়ে লকডাউনের সময় কাটাচ্ছেন।"

মূলত লকডাউনকে উপেক্ষা করে রাস্তায় এখনও সাধারণ মানুষের বেরোনোর অভিযোগ উঠছে  কলকাতা সহ গোটা রাজ্যে। যদিও লকডাউনে কোন কারণ ছাড়া বেরোলেই এ রাজ্যের তরফেও শাস্তি মূলক ব্যবস্থা নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু সামগ্রিকভাবে ফ্রান্সের এই শহর মোটা টাকার জরিমানা দিয়ে কীভাবে লকডাউনকে সফল করছে তারই বার্তা দিলেন বিজ্ঞানী প্রবহন চক্রবর্তী ।

 
Published by: Pooja Basu
First published: April 26, 2020, 11:51 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर